যশোর–২ আসন

মনোনয়ন নিয়ে ফিরেই আচরণবিধি লঙ্ঘন

প্রতিনিধি, যশোর
প্রকাশ: ২৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৩:২০
আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৩:৪৪

দলীয় মনোনয়ন পেয়ে যশোর-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মেজর জেনারেল (অব.) মো. নাসির উদ্দিন গতকাল যশোর বিমানবন্দর থেকে বিশাল মোটরশোভাযাত্রা করে চৌগাছায় যান। এ সময় তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এক পথসভায় বক্তৃতা করেন। প্রথম আলোযশোর-২ (ঝিকরগাছা ও চৌগাছা উপজেলা) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন মেজর জেনারেল (অব.) অধ্যাপক মো. নাসির উদ্দিন। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে গতকাল মঙ্গলবার সকালে তিনি যশোর বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। এরপর গাড়ির বিশাল শোভাযাত্রা করে তিনি চৌগাছা উপজেলায় যান। শোভাযাত্রায় বিভিন্ন ধরনের চার শতাধিক গাড়ি অংশ নেয়।
এ সময় প্রার্থী মো. নাসির উদ্দিন ও চৌগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান একটি ছাদখোলা মাইক্রোবাসে দাঁড়িয়ে নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে হাত নাড়েন। দুপুর ১২টায় তিনি চৌগাছা শহরে অবস্থিত মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কর্যে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ্য দেন। এরপর তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এক পথসভায় বক্তব্য দেন।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সাবেক ঝিকরগাছা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এস এম সাইফুর রহমান বাবুল, চৌগাছা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও চৌগাছা সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছার পানিসারা ইউপি চেয়ারম্যান নওশের আলী, বাকড়া ইউপি চেয়ারম্যান নিছার উদ্দিন, মাগুরা ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রাজ্জাক, চৌগাছার জগদীশপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক তবিবর রহমান খান, সুখপুকুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান তোতা মিয়া, নারায়ণপুর ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন, স্বরূপদাহ ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আনোয়ার হোসেন, সিংহঝুলি ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খলিল, ফুলসারা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান প্রমুখ।
এরপর নাসির উদ্দিন গাড়িবহর নিয়ে ঝিকরগাছার উদ্দেশে রওনা দেন। তিনি ঝিকরগাছার মোহাম্মাদপুর মোড় ও উপজেলা মোড়ে দুটি পথসভায় বক্তব্য দেন। পথসভায় তিনি ছাড়াও বক্তব্য দেন ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সেলিমুল হক সালাম, উপজেলা যুবলীগের সদস্য রফিকুল ইসলাম ও সেলিম রেজা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সামছুর রহমান প্রমুখ।
যোগাযোগ করলে প্রার্থী নাসির উদ্দিন বলেন, ‘নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের প্রশ্নই ওঠে না। এটা ছিল মূলত একটি রিসিপশন। লোকজন স্বতঃস্ফূর্তভাবে বিমানবন্দরে আমাকে আনতে গিয়েছিলেন। আমরা কাউকে সেখানে যেতে বলিনি। মাত্র দুটি পথসভা হয়েছে। তার মধ্যে একটিতে শুধু মোনাজাত হয়েছে। আর পথসভায় কোনো সমস্যা নেই, যা হয়েছে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনেই হয়েছে।’