default-image

নারায়ণগঞ্জ শহরের চাঁদমারী এলাকায় একটি দোকানে অগ্নিনির্বাপণ সিলিন্ডারে কার্বন ডাই–অক্সাইড গ্যাস রিফিল করার সময় বিস্ফোরণে একজন নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর এই ঘটনা ঘটে।

নিহত রফিকুল ইসলাম (৫০) শহরের চাঁদমারী এলাকায় অবস্থিত ড্রিম হাউস ভবন অবাসিক ভবনের নিচে ‘সেফটি ফাস্ট ফায়ার প্রটেকশন’ দোকানের কর্মচারী। তাঁর বাড়ি লক্ষ্মীপুরে। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি চালাচ্ছে পুলিশ।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আরেফিন প্রথম আলোকে বলেন, অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্রের ছোট সিলিন্ডারে কার্বন ডাই–অক্সাইড গ্যাস নির্দিষ্ট চাপ ও তাপে রিফিল করার সময় ওই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে দোকানের কর্মচারীর মাথা উড়ে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে। তিনি আরও বলেন, রিফিল করতে যাওয়া সিলিন্ডারটি অত্যন্ত পুরোনো ও মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় ওই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। গ্যাসের চাপে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। সিলিন্ডারের মাথায় আঘাত লেগে তাঁর মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন

আবদুল্লাহ আরেফিন আরও বলেন, ‘কার্বন ডাই–অক্সাইড সিলিন্ডার খোলার সময় হাতে প্রচণ্ড শক্তি লাগে। হাত থেকে যদি ছুটে যায় তাহলে দুর্ঘটনা ঘটে। ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় আশপাশে কেউ ছিল কি না, জানা নেই। ধারণা করা হচ্ছে, নিরাপত্তার বিষয়টি না রাখায় এই দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।’

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ওই দোকানে অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র বিক্রি ও রিফিল করা হতো। অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র রিফিল করার সময় বিস্ফোরণ ঘটে। নিহত রফিকুল ইসলাম লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। ওসি আরও বলেন, ওই দোকানে যে ধরনের নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকা দরকার, কাগজপত্র রয়েছে কি না, সেগুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন