বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির ওই রিট আবেদনকারী। রিটে গত বছরের ১ ডিসেম্বর যাবজ্জীবন মানে ৩০ বছরের কারাদণ্ড সংক্রান্ত আপিল বিভাগের রায়ে সাজাপ্রদান সংক্রান্ত নির্দেশনার প্রসঙ্গ রয়েছে।

রিটে বলা হয়, নির্দেশিকার অনুপস্থিতিতে বিস্তৃত এখতিয়ারের কারণে বিচারককে অনিশ্চিত ও অসামঞ্জস্যপূর্ণ সাজা প্রদানে পরিচালিত করে, যা সংবিধানের ২৭, ৩১ ও ৩২ অনুচ্ছেদের লঙ্ঘন।

রিটের প্রার্থনায় দেখা যায়, আপিল বিভাগের ওই রায়ের আলোকে অভিন্ন ও সামঞ্জস্যপূর্ণ সাজার চর্চা নিশ্চিতে সাজা প্রদানে নির্দেশিকা বা নীতিমালা প্রণয়ন করতে নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না, এ বিষয়ে রুল চাওয়া হয়েছে।

রুল হলে তা বিচারাধীন ওই ইস্যুটি (সাজার নির্দেশিকা) গভীর পরীক্ষায় অবসরপ্রাপ্ত বিচারক, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী, শিক্ষাবিদ ও আইনি সহায়তা প্রদানকারী সংস্থার সঙ্গে আলোচনা করতে ও প্রতিবেদন দিতে আইন কমিশনের চেয়ারম্যানের প্রতি নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে রিটে।

আইন মন্ত্রণালয়ের দুই সচিব ও আইন কমিশনের চেয়ারম্যানকে রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন