গতকাল বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সেখানে তিনি বলেন, কেন সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে যেতে দিতে চায় না? তারা আইনের কথা বলে। এই আইনের মধ্যেই বলা আছে, ইচ্ছা করলে সরকার তাঁকে যেতে দিতে পারে। বাধা আইন নয়, বাধা হচ্ছে সরকার। এই অবৈধ সরকার তাঁকে (খালেদা জিয়া) রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সরকার যদি অবৈধই হয়, তাহলে এই অবৈধ সরকারের কাছে দাবি করছেন কেন?’

মির্জা ফখরুলের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘আর এই সরকার অবৈধই-বা কী করে হয়? সংসদে তো আপনাদেরও বৈধভাবে প্রতিনিধিত্ব রয়েছে।’

শিক্ষার্থীদের জন্য অর্ধেক ভাড়ার যে সিদ্ধান্ত, তা বাস্তবায়ন না করার অভিযোগ রয়েছে ঢাকায় বেশ কিছু বাসের বিরুদ্ধে। এ কথা উল্লেখ করে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের পরিবহনমালিক-শ্রমিকদের আবার অনুরোধ করে বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের প্রতি সংবেদনশীল হয়ে অর্ধেক ভাড়ার সিদ্ধান্তটি বাস্তবায়ন করুন।’

পরিবহনমালিক-শ্রমিকদের প্রতি প্রশ্ন রেখে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কথা দিয়ে কথা রাখুন। আপনাদের সিদ্ধান্ত আপনারাই কেন লঙ্ঘন করছেন?’

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের চাপে পরিবহনমালিকেরা শুধু রাজধানী ঢাকায় অর্ধেক ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তবে গতকাল অর্ধেক ভাড়া কার্যকরের প্রথম দিন দেখা যায়, সেই ঘোষণার আংশিক পূরণ হয়েছে। বেসরকারি বাসে অর্ধেকের নামে কিছুটা বাড়িয়ে ভাড়া নিতে দেখা গেছে। কোনো কোনো পরিবহনকর্মী অর্ধেক ভাড়ার ঘোষণা জানেন না দাবি করে পুরোটাই নিয়েছেন। যাত্রীদের চাপে শেষমেশ অর্ধেক নিলেও কটু কথা শুনিয়েছেন। সরকারের পরিবহন সংস্থা বিআরটিসিতেও অর্ধেকের চেয়ে কিছুটা বেশি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন