default-image

মেলার মেয়াদ আর বাড়ছে না, তবে সময় আজ দেড় ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার অমর একুশে গ্রন্থমেলার ফটক খুলবে বেলা দুইটায়। তথ্যকেন্দ্র থেকে মাইকে গতকাল ঘন ঘন দেওয়া হচ্ছিল এই ঘোষণা। খুলবে যেমন এক ঘণ্টা আগে, তেমনি বন্ধও হবে আধা ঘণ্টা পরে অর্থাৎ রাত সাড়ে আটটার বদলে রাত নয়টায়। আর শেষের দুই দিন শুক্র ও শনিবার মেলা চলবে বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।
গতকাল শুরু থেকেই প্রচুর লোকসমাগম হয়েছিল উভয় পাশেই। তবে বেচাকেনার যা ধারা, তাতে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নন প্রকাশকেরা। বিশেষ কিছু স্টলেই ক্রেতাদের ভিড়। অধিকাংশ স্টলের সামনে দিয়ে লোকজন চলমান। কেউ কেউ থেমে একটি-দুটি বইয়ের পাতা উল্টে দেখছেন, পছন্দ হলে কিনছেন—এই অবস্থা। নবযুগ প্রকাশনীর স্টল ব্যবস্থাপক দেবাশিস পৈত বললেন, ‘সত্যি কথা বলতে কি, এবার খুব মন্দা গেছে বিক্রি।’ তাঁদের স্টল উদ্যানের পূর্ব প্রান্তে। এদিকে বেশ কয়েকটি বড় প্রকাশনীর প্যাভিলিয়নও আছে। তা সত্ত্বেও মেলার শেষ দিকে যেমন জমজমাট বেচাকেনা হয়, তেমন চোখে পড়ল না।
মেলায় এলে চেতনা শাণিত হয়: মেলার একাডেমি অংশে কথা হলো বিশিষ্ট ছড়াকার লুৎফর রহমান রিটনের সঙ্গে। এবারের মেলার পরিবেশ সম্পর্কে তিনি বললেন, মেলায় এসে কোনো দিনই বোঝা যায়নি দেশে হরতাল-অবরোধ চলছে। রাজনৈতিক অস্থির পরিবেশকে উপেক্ষা করে গ্রন্থানুরাগী, বিশেষ করে তরুণ প্রজন্ম, মেলায় এসেছে। সবার হাতে হয়তো বই ছিল না, তা থাকারও দরকার নেই। এই মেলার সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধ, বাঙালি সংস্কৃতির চেতনা জড়িত। মেলায় এলে সেই চেতনা শাণিত হয়, এটাই জরুরি। এবার মেলায় তাঁর বেশ কয়েকটি বই প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে কথা প্রকাশ থেকে স্মৃতিকথা স্মৃতির জোনাকিরা, চন্দ্রাবতী একাডেমী থেকে লিলিপুটের ছোট ভাই, বাংলা একাডেমি থেকে নির্বাচিত হাসির ছড়া এসব।
প্রথমায় এল বিপুলা পৃথিবী: দেশের বরেণ্য শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের স্মৃতিকথা বিপুলা পৃথিবী এসেছে প্রথমায়। বইটি শুরু হয়েছে নবীন রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের সময় থেকে। এরপর তা ছড়িয়ে পড়েছে এ দেশের ইতিহাসের তিনটি দশকের পটভূমিজুড়ে। ইতিহাসের বহু ঘটনা তিনি দেখেছেন ভেতর থেকে। বহু উদ্যোগে সক্রিয় থেকেছেন। সংস্পর্শে এসেছেন এ সময়ের ইতিহাসের নায়কদের। অনেকের পেয়েছেন নিবিড় সান্নিধ্য। ফলে বইটি কেবল তাঁর আত্মস্মৃতিই নয়, ইতিহাসেরও অন্তরঙ্গ উন্মোচন। এই স্টলের বিক্রেতারা জানালেন, বইটি বেশ ভালো চলছে। এ ছাড়া আরেকটি নতুন বই এসেছে চিকিৎসাবিষয়ক তুমি কিভাবে ভালো থাকবে: শৈশব ও বয়ঃসন্ধিকালের স্বাস্থ্যবিধি। গতকাল সেলিনা হোসেনের দিনকালের কাঠখড় উপন্যাসটিও ভালো বিক্রি হয়েছে।
নতুন বই: তথ্যকেন্দ্রের হিসাব অনুসারে গতকাল নতুন বই এসেছে ১১৬টি। নজরুল মঞ্চে মোড়ক উন্মোচন হয়েছে ১১টি বইয়ের। নতুন বইয়ের মধ্যে রয়েছে অ্যাডর্ন থেকে মাহাবুব তালুকদারের প্রবন্ধ আমি কখনো সত্য কথা বলি না, নৃত্যগুরু বুলবুল চৌধুরীর স্ত্রী আফরোজা বুলবুলের স্মৃতিকথা সুন্দর এই পৃথিবী আমার, নন্দিনী থেকে নাজমা আহমেদের প্রবন্ধ বাংলাদেশ ও আমাদের উৎসব, প্রতিভা থেকে ইতিহাসবিষয়ক বই সাদমান মাহাতাব কিবরিয়ার ঐতিহাসিক স্থাপত্য ও আমাদের ঐতিহ্য, মোবারক হোসেন খানের ছয় মুঘল সম্রাট, আজকাল প্রকাশনী থেকে বিপ্লব বালার আধুনিক বাংলা থিয়েটার: শিল্প ও রাজনীতি, সন্দেশ থেকে প্রকাশিত হয়েছে সৌরীন নাগ অনূদিত আইজাক আসিমভের জীবনী আমি, আসিমভ, কাইজার চৌধুরীর শিশুতোষ গল্প আমাদের একাত্তর । এ ছাড়া গতকাল মেলায় অনন্যা থেকে প্রকাশিত ইমদাদুল হক মিলনের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস সাড়ে তিন হাত ভূমি ও পারুল কন্যা ভালো চলেছে। এবার মেলায় প্রকাশিত হয়েছে তাঁর শিশুতোষ গল্প ভূত এসে দেখা করে গেল ও গল্পগ্রন্থ সুরভী। নবযুগ থেকে এসেছে আলী যাকেরের ভ্রমণবিষয়ক বই দূরে কাছে স্বর্গ আছে ও পূরবী বসুর নোবেল বিজয়ী দম্পতি।
মেলার আছে আর দুদিন। লেখকে-পাঠকে মেলার মাঠ শেষ দিনগুলো প্রাণবন্ত হয়ে থাকবে নিশ্চিত।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন