বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনে বলা হয়, পারিবারিক দ্বন্দ্ব, পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের পর শিশুদের হত্যা করা হয়। একই সময়ে ১২৭ জন কন্যাশিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়। এ ছাড়া ১১২ জন কন্যাশিশু যৌন হয়রানি ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে। নির্যাতনগুলোর অধিকাংশই হয়েছে সড়কে, নিজ বাসায়, নিকটতম আত্মীয় বা গৃহকর্তার মাধ্যমে। আর যৌন নির্যাতনে নতুন যুক্ত হয়েছে পর্নোগ্রাফি। এই সময়ে ২১ জন কন্যাশিশু পর্নোগ্রাফির শিকার হয়েছে। গত বছরের তুলনায় যৌন হয়রানির ঘটনা ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ ছাড়া অ্যাসিড আক্রমণের শিকার হয়েছে ৯ জন, অপহরণ ও পাচার হয়েছে ১৪০ জন, যৌতুকের কারণে নির্যাতনের শিকার ১১ জন এবং যৌতুক দিতে না পারায় ৯ জনকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উঠে এসেছে।

একই সময়ে ১৫৩ জন কন্যাশিশু আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে উল্লেখ করে প্রতিবেদনে কারণ হিসেবে বলা হয়, স্কুল বন্ধ থাকায় হতাশা, পারিবারিক মতানৈক্য, প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হওয়া ও যৌন নির্যাতন, যা প্রকাশ করার মতো অভয় আশ্রয়স্থলের অভাব। এ ছাড়া গত ৮ মাসে ১৪ জন কন্যাশিশুকে বিভিন্ন স্থানে ফেলে রেখে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ২৪ জন কন্যাশিশু গৃহশ্রমিক হিসেবে নির্যাতনেরও তথ্য রয়েছে সংগঠনটির কাছে।

জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সভাপতি বদিউল আলম মজুমদারের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন এডুকো বাংলাদেশের ডিরেক্টর অব প্রোগ্রাম ফারজানা খান এবং একশনএইড বাংলাদেশের চাইল্ড স্পন্সরশিপ ম্যানেজার মনিকা বিশ্বাস।

সভাপতির বক্তব্যে বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘দলীয়করণের ঊর্ধ্বে উঠে আমাদের শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদ জানাতে হবে। প্রতিবাদের পরিবেশ তৈরি করতে হবে। আমাদের মধ্যে অনেক বিভক্তি হয়ে গেছে। এসব বিভক্তি দূরে ঠেলে দলীয়করণ ভেঙে নির্যাতন বন্ধ করতে হবে। সোচ্চার প্রতিবাদ করতে হবে। রাজনৈতিক প্রশ্রয় বন্ধ করতে হবে। আইনগুলো আরও কঠোরভাবে প্রয়োগ করতে হবে।’

এ সময় সংগঠনের সম্পাদক নাছিমা আক্তার বলেন, নির্যাতনের শিকার এসব কন্যাশিশু আজীবন একটা ট্রমার মধ্যে বেড়ে ওঠে, নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে না। যার কুফল পরিবার, সমাজ এবং রাষ্ট্রের ওপরও পরে। তিনি আরও বলেন, করোনার সময় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও কিছুসংখ্যক মাদ্রাসা–মক্তবে কন্যাশিশুরা ক্লাস করেছে। সেখানে দুজন কন্যাশিশু যৌন হয়রানি এবং ছয়জন ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন