আরও কয়েকটি টিভি চ্যানেল

বিজ্ঞাপন

মেয়াদের শেষ দিকে এসে রাজনৈতিক বিবেচনায় আরও ১৩টি নতুন টিভি চ্যানেলের অনুমোদন দিয়েছে সরকার। ছোট্ট একটা দেশে এত এত টিভি চ্যানেলের কী দরকার, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও গণমাধ্যমের প্রসারের লক্ষ্যে সরকারের এ উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই। সেই সঙ্গে বর্তমান সময়ের পরিপ্রেক্ষিতে আরও কয়েকটি বিশেষায়িত টিভি চ্যানেল চালু করার ব্যাপারে সরকার ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। 

নির্বাচন নিউজ

এটি মূলত নির্বাচনভিত্তিক চ্যানেল হবে। এই টিভিতে প্রচার করা হবে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের ছোট-বড় নানা রকম রাজনৈতিক নির্বাচনের খবর। আমাদের দেশে একটি স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ ও আন্তর্জাতিক মানের জাতীয় নির্বাচন করার ক্ষেত্রে এই চ্যানেল বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারবে বলে আশা করা যায়।

সংলাপ টিভি

বর্তমানে প্রায় সব টিভি চ্যানেলেই মাঝরাত থেকে একযোগে টক শো শুরু হয়। নানা ইস্যুতে হওয়া এসব টক শো রাতে প্রচারিত হয় বলে অনেক দর্শকই এগুলো দেখতে পারেন না। তাঁদের কথা মাথায় রেখে এই বিশেষায়িত টিভি চ্যানেলটি চালু করা যেতে পারে। এই চ্যানেলে দিন-রাত ২৪ ঘণ্টাই নানা রকম ইস্যু নিয়ে টক শো প্রচারিত হবে। তা ছাড়া সরকারি ও বিরোধী দলের মধ্যে সংলাপেরও আয়োজন করতে পারে এই চ্যানেল।

হরতাল ভিশন

‘দৃষ্টিজুড়ে হরতাল’—এই স্লোগান ধারণ করে দেশের সার্বিক হরতাল পরিস্থিতি সরাসরি প্রচার ও বিশ্লেষণ করে দেখাবে এই চ্যানেল। হরতালের পাশাপাশি বিক্ষোভ, অবরোধ, লংমার্চ, মানববন্ধন ইত্যাদি কর্মসূচিও সরাসরি প্রচার করবে এরা। এ ছাড়া অন্যান্য দেশের নানা রকম আন্দোলন-কর্মসূচিও এরা গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করবে।

চ্যানেল ভাঙচুর

আজকাল পান থেকে চুন খসলেই ভাঙচুর শুরু হয়ে যায়। এই চ্যানেলের কাজ হবে, যখন যেখানেই ভাঙচুর শুরু হবে, তখনই সেখানকার সর্বশেষ পরিস্থিতি সরাসরি প্রচার করা। এ ছাড়া ভাঙচুর করার পর ভাঙচুরকারী ও ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের ব্যক্ত অনুভূতিও প্রচার করা হবে এই চ্যানেলে।

পেট্রল বাংলা

এখনকার হরতালে প্রায়ই দেখা যায় পেট্রল দিয়ে যানবাহনে আগুন ধরিয়ে দিতে। এই চ্যানেলের কাজ হবে এক্সক্লুসিভ সেই মুহূর্তগুলো সরাসরি মানুষের কাছে তুলে ধরা। পেট্রলের পাশাপাশি গানপাউডার ছিটিয়ে আগুন দেওয়ার দৃশ্যও দেখানো হবে এতে।

ককটেল টিভি

বর্তমানে আমাদের দেশে সবচেয়ে আলোচিত বস্তু হচ্ছে ককটেল। ককটেল নিয়ে জনমনে একই সঙ্গে রয়েছে ব্যাপক আগ্রহ ও আতঙ্ক। এই চ্যানেল হরতালের সময় ককটেল বিস্ফোরণের দৃশ্য সরাসরি দর্শকদের সামনে তুলে ধরবে। তা ছাড়া ককটেল তৈরি, নিক্ষেপ ও বিস্ফোরণের ওপর বিশ্লেষণমূলক প্রতিবেদন প্রচার করবে এরা। ককটেল বিস্ফোরণে আহত ব্যক্তিদের প্রাথমিক চিকিৎসা সম্পর্কেও দিকনির্দেশনা প্রচার করবে চ্যানেলটি।

টিয়ার শেল নিউজ ২৪

আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশের অন্যতম অস্ত্র হলো টিয়ার শেল। এই চ্যানেলে আন্দোলনকারীদের ওপর পুলিশের টিয়ার শেল নিক্ষেপের দৃশ্য সরাসরি দেখানো হবে। এ ছাড়া রাবার বুলেট, শটগান, ফাঁকা গুলি ও লাঠিপেটা করার দৃশ্যও দেখানো হবে। মূলত আন্দোলনের সময় বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে পুলিশের সার্বিক ভূমিকা দর্শকদের সামনে তুলে ধরবে এই চ্যানেল।

চ্যানেল দৌড়

হরতালের সময় পুলিশ ও পিকেটারদের মধ্যে সংঘর্ষ হয় আর সাধারণ পথচারীরা পড়ে চরম বিপাকে। জান বাঁচাতে তারা যে যেদিকে পারে, দৌড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যায়। এই চ্যানেল এসব সাধারণ পথচারীর ঊর্ধ্বশ্বাসে দৌড় দেওয়ার দৃশ্য সরাসরি সম্প্রচার করবে। দৌড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার পর তাদের অনুভূতিও প্রচার করা হবে এখানে।

অসহায় টিভি

লাগাতার হরতাল-অবরোধের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় খেটে খাওয়া দরিদ্র মানুষগুলো। রাজনৈতিক অস্থিরতায় তাদের আয়-রোজগার একপ্রকার বন্ধ হয়ে যায়। অসহায় এসব খেটে খাওয়া মানুষের কথা প্রচার করবে এই টিভি চ্যানেল। তা ছাড়া হরতালের সহিংসতায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের দুঃখ-দুর্দশার কথাও গুরুত্বের সঙ্গে প্রচার করবে তারা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন