default-image

আন্তর্জাতিক ইকোনমিকস অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশ জাতীয় দলের চার প্রতিযোগী ব্যক্তিগত ব্রোঞ্জ পদক এবং বিজনেস কেস সলভিং রাউন্ডে দলীয় ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করেছে। গত ৭-১৩ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ইকোনমিকস অলিম্পিয়াডে দেশের জন্য এ সুনাম বয়ে এনেছে একদল কিশোর-কিশোরী। প্রথমবারের মতো দেশকে ৫টি ব্রোঞ্জ পদক এনে দিয়েছে এই অলিম্পিয়াড।


পদকজয়ীরা হলো এসএফএক্স গ্রিন হেরাল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ছাত্র দর্পণ বড়ুয়া ও ফারিহা জামান প্রমি, সানিডেল স্কুলের ছাত্র সৈয়দ নাজিফ ইশরাক ও সানবিমস স্কুলের ছাত্র ফারাজ মহিউদ্দিন চৌধুরী। দলনেতারা হলো ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকসের লেকচারার আল আমিন পারভেজ এবং ক্যাপস্টোন স্কুল ঢাকার চেয়ারম্যান আক্তার আহমেদ। এসএফএক্স গ্রীন হেরাল্ড স্কুলের অপর প্রতিযোগী ইসফার জাওয়াদ ফিনান্সিয়াল লিটারেসি রাউন্ডে দারুণ কৃতিত্ব দেখায়।

বিজ্ঞাপন

আন্তর্জাতিক ইকোনমিকস অলিম্পিয়াড হলো স্কুল ও কলেজ পর্যায়ের অর্থনীতিবিষয়ক সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতা। আন্তর্জাতিক কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন ২০০৭ সালের নোবেল বিজয়ী এরিক মাসকিন। তিনি বর্তমানে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি ও গণিত বিভাগের প্রধান। এই প্রতিযোগিতায় ২৯টি দেশ অংশগ্রহণ করে। বাংলাদেশ ইকোনমিকস অলিম্পিয়াড কমিটির মাধ্যমে ২০১৯ সাল থেকে বাংলাদেশ দল এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে।


এ বছর দেশব্যাপী বাছাইপর্বের মাধ্যমে প্রায় ৮০০ প্রতিযোগীর মধ্য থেকে বাছাই করা হয় সেরা ১০ জনকে। এরপর মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ শেষে সেরা ৫ জন অংশ নেয় আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়। আয়োজনটি এ বছর কাজাখস্তানে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাস মহামারির কারণে অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিযোগিতাটি ফাইন্যান্সিয়াল লিটারেসি রাউন্ড, ইকোনমিকস অলিম্পিয়াড এবং বিজনেস কেস সলভিং রাউন্ডে ভাগ করা। বাংলাদেশ দল ফাইনান্সিয়াল লিটারেসি রাউন্ডে ২৯টি দেশের মধ্যে পঞ্চম স্থান অধিকার করে এবং বিজনেস কেস রাউন্ডে রাশিয়া, কানাডা, আমেরিকা, ভারত, মালয়েশিয়া, ইরান, ইন্দোনেশিয়ার মতো দলকে পরাজিত করে ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে।

বিজ্ঞাপন

এ বছর প্রতিযোগিতাটির বিচারক প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করেছে protijog.com এবং প্রতিযোগিতাটির মিডিয়া পার্টনার দ্য ডেইলি স্টার।

দুই বছর ধরে আমরা এই অলিম্পিয়াড আয়োজন করে আসছি। এ বছরের সাফল্য আমাদের এই প্রচেষ্টাকে আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে
তাহসিনুল ইসলাম, বাংলাদেশ ইকোনমিক অলিম্পিয়াড কমিটির অর্গানাইজিং কমিটির প্রেসিডেন্ট

বাংলাদেশ ইকোনমিকস অলিম্পিয়াড কমিটির নেতৃত্বে থাকা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ এবং সমাজকর্মী কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ এ বিজয়ে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘এই অদম্য তরুণদের হাত ধরেই একদিন গড়ে উঠবে স্বপ্নের বাংলাদেশ।’

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ দলের এ সাফল্যের ব্যাপারটি নিশ্চিত করে বাংলাদেশ ইকোনমিক অলিম্পিয়াড কমিটির অর্গানাইজিং কমিটির প্রেসিডেন্ট তাহসিনুল ইসলাম বলেন, ‘দুই বছর ধরে আমরা এই অলিম্পিয়াড আয়োজন করে আসছি। এ বছরের সাফল্য আমাদের এই প্রচেষ্টাকে আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে।’


কমিটির সমন্বয়ক ফিদ আবরার বলেন, এই পদক দেশের জন্য অনেক বড় একটি অর্জন। পুরো বাংলাদেশের জন্য এটি একটি উৎসবের মুহূর্ত।

মন্তব্য পড়ুন 0