default-image

এএফএস পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশের তরুণ শাহ রাফায়াত চৌধুরী। উন্নয়ন খাতে অসামান্য অবদান রাখায় প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এই পুরস্কার পেলেন ২৪ বছর বয়সী পরিবেশবাদী ও সামাজিক উদ্যোক্তা রাফায়াত। পুরস্কারের আর্থিক মূল্য ১০ হাজার মার্কিন ডলার।
আন্তর্জাতিক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এএফএস ইন্টারকালচারাল প্রোগ্রামস ২০১৯ সাল থেকে এই পুরস্কার দেওয়া শুরু করে। সংস্থাটি শান্তিপূর্ণ বিশ্ব গড়ে তোলায় মানুষের জ্ঞান, দক্ষতা এবং বোঝাপড়া উন্নয়নে আন্তসাংস্কৃতিক শিক্ষার সুযোগ প্রদান করে থাকে। বিশ্ব সম্প্রদায়ের উন্নয়নের প্রতি প্রতিশ্রুতির জন্য প্রতিবছর সারা বিশ্ব থেকে একজন তরুণকে স্বীকৃতি দেয় সংস্থাটি। হাজারো তরুণের মধ্যে এ বছরে সেই স্বীকৃতি পেয়েছেন রাফায়াত চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার এক ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানে এ বছরের এএফএস পুরস্কার বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়। অনুষ্ঠানে এএফএস, ইউনেসকো এবং বিভিন্ন দেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
রাফায়াত বাংলাদেশের সামাজিক ব্যবসায়িক উদ্যোগ ফুটস্টেপস বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট এবং সহপ্রতিষ্ঠাতা। এর আগে বাংলাদেশের ছয় তরুণের সঙ্গে তিনি ডায়না অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছিলেন। এ ছাড়া ২০১৮ সালে ইউরোপিয়ান কমিশনের মনোনীত ১৬ জন প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ নেতার একজন হয়েছিলেন তিনি। রাফায়াত যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটিতে এনভায়রনমেন্টাল ইকোনমিকস অ্যান্ড পলিসি বিষয়ে পড়াশোনা করেছেন।
রাফায়াত চৌধুরী সাংবাদিক দম্পতি কামরুল ইসলাম চৌধুরী ও কাজী শাহনাজের সন্তান।

মন্তব্য পড়ুন 0