বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া এক তথ্যবিবরণীতে বলা হয়, ঢাকার গাবতলী থেকে জাতীয় স্মৃতিসৌধ পর্যন্ত সড়কে কোনো ধরনের তোরণ, ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার লাগানো সীমিত রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্প্রতি এই সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, উল্লিখিত সড়কে কোনোভাবেই ত্রিমাত্রিক বা বক্স আকারে তোরণ তৈরি করা যাবে না। এ ক্ষেত্রে সীমিত পর্যায়ে পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন নিরাপদ দূরত্বে স্থাপন করা যেতে পারে বলে মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উদ্‌যাপনে ১৭ মার্চ থেকে ১০ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানমালা চলছে। স্বাস্থ্য নির্দেশনা মেনে ২৬ মার্চ পর্যন্ত এই অনুষ্ঠান চলবে। অনুষ্ঠানের মূল থিম ‘মুজিব চিরন্তন’। এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কাল বাংলাদেশে আসছেন। বেলা ১১টায় ঢাকায় নামার পর বিমানবন্দর থেকে তিনি সরাসরি জাতীয় স্মৃতিসৌধে যাবেন। সেখানে তিনি পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে একাত্তরের বীর শহীদের শ্রদ্ধা জানাবেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন