কাজ না করেই ২০১২-২০১৩ অর্থবছরে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নে এলজিএসপির একটি প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ বি এম সাদিকুর রহমান ওই অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
ইউএনও বলেন, ওই ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের রামনগর খলিল ডাক্তারের বাড়ির সামনে খালের ওপর বক্স কালভার্ট নির্মাণ না করেই বরাদ্দ
করা ৮০ হাজার টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করা হয়েছে।
ওই টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মৌখিকভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের সব
কটি প্রকল্প সরেজমিনে দেখে কাজ হয়েছে কি না যাচাই করা হবে।
মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের পরামর্শ নিয়ে জনগুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প গ্রহণ করে গত বছরের ৩০ জুনের মধ্যে সব কাজ শেষ করে অর্থ উত্তোলনের কথা ছিল।
ওই নির্দেশ উপেক্ষা করে উপজেলার ১৪টি ইউপির নামে বরাদ্দ করা অধিকাংশ প্রকল্পে কাজ না করেই এবং ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা অর্থ তুলে তা আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন