নির্বাচন বাতিলের দাবি করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের করা আবেদন আমলে নেয়নি নির্বাচন কমিশন (ইসি)। কমিশন বলেছে, নির্বাচন ফলাফল নিয়ে কারও কোনো আপত্তি থাকলে তারা নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে যেতে পারে। এ বিষয়ে ইসির কিছু করার নেই।

আজ সোমবার ইসির বৈঠক শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে ইসি সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্ট আটটি আসনে জয় পেয়েছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ পেয়েছে ২৫৭টি আসন।

৩ জানুয়ারি ঐক্যফ্রন্ট এ নির্বাচন বাতিল এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে নতুন করে নির্বাচন দেওয়ার দাবি করে ইসিতে স্মারকলিপি জমা দেয়। আজকের বৈঠকে কমিশন বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে নির্বাচন ভবনে বিকেল তিনটায় এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এ বিষয়ে হেলালুদ্দীন বলেন, ঐক্যফ্রন্টের পর ৫ জানুয়ারি আওয়ামী লীগও একটি স্মারকলিপি দিয়ে বলেছে, ঐক্যফ্রন্টের অভিযোগ সত্য নয়। কমিশন এগুলো নিয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা করেছেন। ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচন বাতিল এবং নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করার দাবি করেছে। কমিশন বলেছেন, এখন আর এসব করার কোনো সুযোগ নেই। যদি কেউ সংক্ষুব্ধ হয়, তাহলে তারা নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে গিয়ে মামলা করতে পারে।

নির্বাচনের কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল প্রকাশ করা হবে কি না জানতে চাইলে সচিব বলেন, আমাদের কাছে আসনভিত্তিক ফলাফল আছে। কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল সংগ্রহ করা হয়নি। এ তথ্য সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছ থেকে সংগ্রহ করতে হবে। কমিশন সেভাবে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0