গত জানুয়ারি মাসে হাইকোর্ট চূড়ান্ত নীতিমালার বিষয়ে পদক্ষেপের অগ্রগতি জানিয়ে চার মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। এর ধারাবাহিকতায় বিটিআরসি ও তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে পৃথক খসড়া নীতিমালা আজ আদালতে দাখিল করা হয়। শুনানি নিয়ে নীতিমালা নথিভুক্ত রেখে আদেশ দেন আদালত।

ওটিটিনির্ভর বিভিন্ন ওয়েব প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অনৈতিক-আপত্তিকর ভিডিও কনটেন্ট পরিবেশন রোধে নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে এসব প্ল্যাটফর্ম নিয়ন্ত্রণ-তদারকিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা চেয়ে ২০২০ সালে রিট হয়। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তানভীর আহমেদ রিটটি করেন।

রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে একই বছরের ৮ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট রুলসহ আদেশ দেন। রুলে ওটিটিনির্ভর বিভিন্ন ওয়েব প্ল্যাটফর্ম তদারকির জন্য নীতিমালা প্রণয়নের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়।

গত বছরের ১৮ জানুয়ারি হাইকোর্ট তিন মাসের মধ্যে খসড়া নীতিমালা দাখিল করতে নির্দেশ দেন। পরে বিটিআরসি গত জানুয়ারিতে খসড়া নীতিমালা আদালতে দাখিল করে। শুনানি নিয়ে তখন আদালত চার মাসের মধ্যে চূড়ান্ত নীতিমালা প্রণয়নে অগ্রগতি জানিয়ে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দেন। এর ধারাবাহিকতায় আজ বিষয়টি ওঠে।

আদালতে রিটের পক্ষে আইনজীবী তানভীর আহমেদ নিজেই শুনানিতে ছিলেন। বিটিআরসির পক্ষ থেকে ‘রেগুলেশন ফর ডিজিটাল অ্যান্ড সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মস’ বিষয়ে খসড়া নীতিমালা আদালতে দাখিল করে শুনানিতে অংশ নেন আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব।

তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে ‘ওভার দ্য টপ (ওটিটি) কনটেন্টভিত্তিক পরিষেবা প্রদান ও পরিচালনা’ বিষয়ে খসড়া নীতিমালা দাখিল করে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন