বান্দরবানে কনে দেখতে এসে অতিরিক্ত মদ পান করে গত সোমবার রাতে রূপন মল্লিক (২৪) নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে। মরদেহের সুরতহাল ও ময়নাতদন্তের প্রাথমিক আলামতে মদ পান করে অতিরিক্ত নেশাগ্রস্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।
মৃত রূপন মল্লিকের মদ পানের সঙ্গী সাধন মল্লিককে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা পৃথক একটি মামলায় পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তিনি রূপন মল্লিককে হাসপাতালে ভর্তি করার জন্য নিয়ে গেছেন বলে হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছেন।
পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, সাতকানিয়ার দোহাজারির জামাল মেম্বারপাড়ার রূপন মল্লিক এক বন্ধুকে নিয়ে বান্দরবান জেলা শহরে কনে দেখতে এসেছিলেন। তাঁদের সঙ্গে বান্দরবানের সাধন মল্লিকসহ আরও তিনজন মিলে বউ দেখতে যান। বউ দেখা শেষে উজানীপাড়ার এক ঘাটমাঝির বাসায় চোলাই মদ পান করতে যান।
সাধন মল্লিক জানিয়েছেন, তাঁরা পাঁচজন মিলে দুপুর থেকে মদ পান করতে থাকেন। মদ পান করার একপর্যায়ে রূপন মল্লিক নেশাগ্রস্ত হয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। তাঁরা যে বাড়িতে মদ পান করছিলেন সেখানে তাঁকে ঘুমন্ত অবস্থায় রেখে চলে যান। তিনি রাতে এসে রূপনকে ঘুম থেকে জাগানোর চেষ্টা করে দেখেন কোনো সাড়াশব্দ নেই। অবস্থা খারাপ দেখে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
বান্দরবান সদর থানার উপপরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফরিদুল আলম বলেন, অতিরিক্ত মদ পানে মৃত্যুর আলামত পাওয়া যাওয়ায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। সাধন মল্লিককে আলাদা মাদক মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন