করোনার উপসর্গ নিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু

বিজ্ঞাপন

করোনার উপসর্গ জ্বর, ঠান্ডা, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুর হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে তিনি মারা যান। ওই ব্যক্তি (৫০) নড়িয়া পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। অসুস্থ অবস্থায় গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় স্বজনেরা তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

করোনার উপসর্গ থাকায় উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ তাঁর লাশ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছে। আর তাঁর পরিবারের তিন সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও উপজেলা প্রশাসন ওই ব্যক্তির দাফন সম্পন্ন করেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ওই ব্যক্তি দুই সপ্তাহ ধরে জ্বর, ঠান্ডা, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। পরিবারের সদস্যরা তাঁকে চিকিৎসকের কাছে না এনে বিভিন্ন ওঝা ও গ্রাম্য ফকিরের কাছে ঝাড়ফুঁক দিয়েছেন। প্রকৃত চিকিৎসা না পেয়ে তিনি আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন। গতকাল পরিস্থিতি বেশি খারাপ হলে তাঁকে হাসপাতালে আনা হয়। শ্বাসকষ্ট বেশি থাকায় আজ ভোরে তিনি মারা যান।

জ্বর, ঠান্ডা, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এ পর্যন্ত শরীয়তপুরে নয়জনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করার পর আটজনের শরীরেই করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। শরীয়তপুরে এখন পর্যন্ত ৬০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যাঁদের মধ্যে দুজন মারা গেছেন। আর সুস্থ হয়েছেন তিনজন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন