করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরায় কৃষকের মৃত্যু

বিজ্ঞাপন
default-image

করোনার (কোভিড-১৯) উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার সখিপুর ইউনিয়নের এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে (৩২)। আজ রোববার বেলা আড়াইটার দিকে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ মানস কুমার মণ্ডল জানান, জেলার দেবহাটা উপজেলার সখিপুর ইউনিয়ন থেকে গতকাল শনিবার দুপুরের দিকে প্রচণ্ড জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে আসেন ওই রোগী। তাঁকে তৎক্ষণাৎ করোনা আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। ক্রমে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বেলা আড়াইটার দিকে তিনি মারা যান।

মানস কুমার মণ্ডল আরও জানান, মারা যাওয়ার আগে আজ সকালে ওই রোগীর নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। বিষয়টি সিভিল সার্জন কার্যালয়কে অবহিত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের চিকিৎসা কর্মকর্তা জয়ন্ত সরকার জানান, মরদেহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করার কথা বলা হয়েছে। তিনি আরও জানান, জেলায় এ পর্যন্ত ৯৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় ১ হাজার ৫৩১ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) ও খুলনা পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। এর মধ্যে ১ হাজার ১৪৩ জনের নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন সিভিল সার্জন অফিসে এসে পৌঁছেছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা জেলায় এ নিয়ে ১৬ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন। এর আগের ১৫টি মধ্যে ১৩টি প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। সব কটি নেগেটিভ প্রতিবেদন এসেছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন