default-image

করোনার প্রভাবে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের হার কমেছে। এ বছরের প্রথম তিন মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) মন্ত্রিসভায় নেওয়া সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের হার ৪৮ দশমিক ৭৮ শতাংশ। যা গত বছরের এই সময়ে ছিল ৬৪ দশমিক ৭৯ শতাংশ। বছর হিসেবেও এই হার কমেছে। ২০২০ সালে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের হার ছিল প্রায় ৮১ শতাংশ। যা আগের বছর ছিল ৯৬ দশমিক ১২ শতাংশ।

সোমবার অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে মন্ত্রিসভার বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের এ তথ্য তুলে ধরা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত হয় মন্ত্রিসভার বৈঠক। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে সভার সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

এ বছরের প্রথম তিন মাসে মন্ত্রিসভার পাঁচটি বৈঠকে ৪১টি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর মধ্যে ২০টি বাস্তবায়িত হয়। বাকি ২১টি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নাধীন। আর গত বছর এই সময়ে ৭১টি সিদ্ধান্ত নিয়ে বাস্তবায়িত হয় ৪৬টি। অন্যদিকে ২০২০ সালে সারা বছরে ৩৫টি বৈঠকে ২৫১টি সিদ্ধান্ত হয়। এর মধ্যে বাস্তবায়িত হয় ২০৩টি। অপর দিকে ২০১৯ সালে ২৫টি বৈঠকে ২৫৮টি সিদ্ধান্ত হয়। এর মধ্যে ২৪৮টি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হয়।

এই চিত্র বলছে, করোনার সংক্রমণের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতির প্রভাব পড়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিবের দেওয়া ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের লিখিতভাবে যে তথ্য দেওয়া হয়, তাতে বলা হয়, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের বিরূপ পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের বিদ্যমান অগ্রগতির হার কিছুটা ধীর হলেও আশাব্যঞ্জক।

আজকের বৈঠকে তিনটি আইনের খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়। এগুলো হলো টেরিটরিয়াল ওয়াটার্স অ্যান্ড মেরিটাইম জোনস (অ্যামেনমেন্ড) অ্যাক্ট ২০২১, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ ও ডেন্টাল কলেজ আইন এবং বাংলাদেশ গ্যাস, তেল ও খনিজ সম্পদ করপোরেশন আইনের খসড়া।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন