অমর একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতের নেতা কামারুজ্জামানের ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি জানিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ। গতকাল শুক্রবার শাহবাগে গণ-অবস্থান কর্মসূচি থেকে এ দাবি জানানো হয়। এ কর্মসূচিও পালিত হয় এ দাবিতে।
গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার ঘোষণা করেন, কামারুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত প্রতি শুক্রবার গণ-অবস্থান কর্মসূচি হবে। ২ জানুয়ারি প্রথম এ কর্মসূচি পালিত হয়। গতকাল ছিল অষ্টমবারের মতো গণ-অবস্থান। বিকেল চারটা থেকে জাতীয় জাদুঘরের মূল ফটকের সামনে ফুল দিয়ে শহীদ মিনার বানিয়ে তার চারপাশে গোল হয়ে বসে অবস্থান নেন মঞ্চের কর্মী-সংগঠকেরা। এ সময় তাঁরা যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন।
এ সময় ইমরান এইচ সরকার সাংবাদিকদের বলেন, একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দ্রুত কামারুজ্জামানসহ সব যুদ্ধাপরাধীর বিরুদ্ধে রায় কার্যকর করতে হবে। এই চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়েই বাঙালি জাতি কখনো কারও কাছে মাথা নত করেনি।
আজ শনিবার বিকেল চারটা থেকে শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের ‘একুশের গান’ শিরোনামে সাংস্কৃতিক কর্মসূচি রয়েছে। এ অনুষ্ঠানে গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন নিয়ে গাওয়া বাছাই করা ১৬টি গানের শাহবাগের গান শীর্ষক অ্যালবামের মোড়ক উন্মোচন এবং সন্ধ্যায় ভাষাশহীদদের স্মরণে শাহবাগ থেকে টিএসসি পর্যন্ত প্রদীপ প্রজ্বালন করা হবে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন