default-image

কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট পৃষ্ঠাজুড়ে বিজ্ঞাপন ছেপেছে গতকাল শুক্রবার। যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী এই দৈনিক ও বিশ্বব্যাপী সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টের (সিপিজে) সঙ্গে যৌথভাবে এই বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে।

ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের টুইটার অ্যাকাউন্টে এই পুরো পৃষ্ঠা বিজ্ঞাপন ছাপানোর কথা জানিয়েছে। আহমেদ কবির কিশোরের ছবিসহ ছাপানো ওই বিজ্ঞাপনে বলা হয়, সমালোচনা করা, মতামত দেওয়া বা কার্টুন আঁকা অপরাধ নয়। ছবির নিচে লেখা কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর বাংলাদেশের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন লঙ্ঘন এবং ‘মিথ্যা ও আপত্তিকর’ তথ্য প্রকাশের অভিযোগে অভিযুক্ত। বাংলাদেশ সরকারের উচিত এই অভিযোগ প্রত্যাহার করা এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করা।

বিজ্ঞাপন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে র‌্যাবের করা একটি মামলায় গত বছরের ৫ মে কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। পরে জামিনে মুক্তি পেয়ে কিশোর অভিযোগ করেন, তাঁকে ২ মে সন্ধ্যায় ১৬-১৭ জন সাদাপোশাকধারী ব্যক্তি বাসা থেকে জোর করে তুলে নিয়ে যান। তাঁকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে নির্যাতন এবং তাঁর আঁকা বিভিন্ন কার্টুন দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ৫ মে তিনি নিজেকে র‍্যাব কার্যালয়ে দেখতে পান। সেখানে লেখক মুশতাক আহমেদকেও দেখেন কিশোর।

রমনা থানায় করা ওই মামলায় মোট ১১ জনকে আসামি করা হয়। তাঁদের মধ্যে মুশতাক আহমেদও রয়েছেন। তিনি কারাবন্দী অবস্থায় গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মারা যান। প্রায় ১০ মাস কারাভোগের পর উচ্চ আদালত থেকে ছয় মাসের জামিন পান কিশোর। গত ৪ মার্চ তিনি কারাগার থেকে মুক্তি পান।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন