কুষ্টিয়ায় দুটি দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হয়েছে। গতকাল সোমবার ওই দুর্ঘটনা ঘটে।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার জগতি ইউনিয়নে ট্রেনে কাটা পড়ে এক কিশোর নিহত হয়। সোমবার সকালে কুষ্টিয়া-পোড়াদহ ট্রেন লাইনের জগতি কলাবাড়িয়ায় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত কিশোরের নাম পিন্টু প্রামানিক (১৬)। পিন্টু কলাবাড়িয়া গ্রামের আকুব্বরের ছেলে।

পোড়াদহ রেলওয়ে থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সকালে পোড়াদহ থেকে একটি মেইল ট্রেন দৌলতদিয়ার উদ্দেশে রওনা দেয়। জগতি কলাবাড়িয়ায় পৌঁছালে ট্রেনের স্লিপারের ওপর বসে থাকা পিন্টুর ওপর দিয়ে ট্রেনটি চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় পিন্টু। পরে খবর পেয়ে রেলওয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পোড়াদহ রেলওয়ে থানার ওসি এনামুল হক বলেন, লাশ উদ্ধারের সময় পিন্টুর পকেটে মুঠোফোন ও কানে হেডফোন পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, গান শোনার সময় ট্রেনের হুইসেল সে শুনতে পায়নি।

কুষ্টিয়া-ঈশ্বরদী মহাসড়কে কুষ্টিয়া পুলিশ লাইনের সামনে সোমবার ট্রাকের চাপায় মোটরসাইকেলের এক চালক নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তির নাম পারভেজ রহমান (১৮)। তিনি কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাটশ হরিপুর গ্রামের মৃত মিন্টু মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী ইমরান হোসেনকে (১৫) গুরুতর আহত অবস্থায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দুপুরে পারভেজ ও ইমরান মোটরসাইকেলে করে কুষ্টিয়া থেকে ত্রিমোহনীর দিকে যাচ্ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন