কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় রানাখড়িয়া এলাকায় গতকাল শনিবার ট্রাক ও ইঞ্জিনচালিত ভ্যানের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। একই দিন যশোর সদরের চূড়ামনকাঠি এলাকায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন।
নিহতরা হলেন, কুষ্টিয়া শহরতলির রিকশাচালক শাজাহান প্রামাণিক (৪৮) ও দৌলতপুরের আল্লারদরগা গ্রামের ফরিদা খাতুন (৪৫)। এ ঘটনায় বানু খাতুন (৪০) নামের একজন আহত হয়েছেন । বানু নিহত শাজাহানের স্ত্রী ও ফরিদার বোন।
বানু খাতুন বলেন, দুপুরে স্বামী শাজাহান ও বোন ফরিদার সঙ্গে ইঞ্জিনচালিত ভ্যানে করে বোনের বাড়ি আল্লারদরগা যাচ্ছিলেন। রানাখড়িয়া এলাকায় ভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এ সময় সামনে থেকে আসা কুষ্টিয়াগামী একটি বালুবোঝাই ট্রাক ভ্যানটিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে তিনিসহ ভ্যানের সবাই ছিটকে পড়েন।
মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী জালাল উদ্দিন বলেন, লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।
যশোরের চূড়ামনকাঠি এলাকায় শনিবার সকালে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে আবদুল কাদের বিশ্বাস (৩৮) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহত আবদুল কাদের সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি মাছ ব্যবসায়ী ছিলেন।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সকালে আবদুল কাদের মোটরসাইকেল চালিয়ে যশোর থেকে ঝিনাইদহের দিকে যাচ্ছিলেন। পথে চূড়ামনকাঠি এলাকায় পৌঁছালে একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পেছন থেকে মোটরসাইকেলের ওপর দিয়ে চালিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই কাদের নিহত হন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন