কোচিং সেন্টারকে সহায়ক শিক্ষাকেন্দ্র হিসেবে চান মালিকেরা

বিজ্ঞাপন
default-image

কোচিংয়ে সেন্টারকে বন্ধ না করে ছায়া শিক্ষা বা সহায়ক শিক্ষাকেন্দ্র হিসেবে স্বীকৃতির দাবি জানিয়েছে কোচিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ। 

আজ রোববার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে কোচিং মালিকদের এ সংগঠনটি এ দাবি জানায়। একই সঙ্গে তারা আগামী দিনগুলোতে কোচিং সেন্টার বন্ধে কোনো সিদ্ধান্ত না নিতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানায়। লিখিত বক্তব্যে তারা এসব দাবি জানায়।
সংগঠনের আহ্বায়ক ইমাদুল হক লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত কয়েক সপ্তাহে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে দেখা যায়, প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে যাঁদের নাম পাওয়া গেছে, তাঁদের মধ্যে ৪২ জন স্কুলশিক্ষক, ৯২ জন শিক্ষার্থী, ৮৫ জন অন্যান্য পেশার। কোচিং সেন্টারের কয়েকজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে দু-একটি অভিযোগ এসেছে।
ইমাদুল হক দাবি করেন, প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে কোচিং সেন্টার সংশ্লিষ্ট হোক বা না হোক, এর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের সবাইকে আইনের আওতায় আনতে হবে।
সংবাদ সম্মেলনে কোচিংয়ের পক্ষে বিভিন্ন যুক্তি তুলে ধরা হয়। সভায় বক্তব্য দেন উদ্ভাস কোচিং সেন্টারের উদ্যোক্তাদের একজন মাহমুদুল হাসানসহ প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন