ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ (টিওটি) কর্মসূচির উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি এসব কথা বলেন। তিনি জানান, ৩০০ সংসদীয় আসনে ইভিএমে ভোট করার সামর্থ্য এই মুহূর্তে ইসির নেই।

গত শনিবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইঙ্গিত দেন, আগামী সংসদ নির্বাচন হবে ইভিএমে। এরপর থেকে রাজনৈতিক অঙ্গনে ইভিএম নিয়ে আলোচনা চলছে। নির্বাচনে ইভিএমের ব্যবহার নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে বিতর্ক আছে। বিএনপিসহ সরকারবিরোধী দলগুলো ইভিএমের বিরোধিতা করে আসছে।

এ বিষয়ে আজ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি হাবিবুল আউয়াল বলেন, ভোট গ্রহণ কীভাবে হবে, কতটা ইভিএমে হবে, কতটা ব্যালটে হবে—এ বিষয়ে ইসি এখন পর্যন্ত কোনো সুস্পষ্ট সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেনি। এটি পর্যালোচনাধীন রয়েছে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘হয়তো আপনারা বলতে পারেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটা বক্তব্য দিয়েছেন। বিভিন্ন দল থেকে বক্তব্য আসতে পারে। আমি জানি না, এটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, না আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেছেন, এটা এখনো স্পষ্ট না। আওয়ামী লীগের সভানেত্রী বলা, বিএনপির প্রধান বলা, জাসদের আবদুর রব বলা এগুলো ভিন্ন জিনিস।’

সিইসি বলেন, ‘অনেকে অনেক ইচ্ছা ব্যক্ত করতে পারেন। সদিচ্ছা ব্যক্ত করতে পারেন। ইভিএমে ভোট নেওয়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারিনি।’ তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের এখতিয়ারভুক্ত। পদ্ধতিও আমাদের এখতিয়ারভুক্ত।’

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন