কোভিড-১৯–এ আক্রান্ত মাগুরার এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার ভোরে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তাঁর। তিনি সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।

মৃত ওই নারীর নাম মৌসুমি আক্তার (২৬)। তিনি মাগুরা শহরের আদর্শপাড়া এলাকার আবু তাহেরের মেয়ে এবং নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার মাহাবুবুর রহমানের স্ত্রী।

মাগুরা সিভিল সার্জন কার্যালয় ও মৃত নারীর পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, ১ জুলাই মৌসুমি আক্তার ও তাঁর বাবা আবু তাহেরের কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য বিভাগ। ৩ জুলাই তাঁদের দুজনেরই কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে। এরই মধ্যে মৌসুমি আক্তারের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে প্রথমে মাগুরা সদর হাসপাতাল ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নেওয়া হয়। সেখান থেকে ৩ জুলাই রাতে সাভারের এনাম মেডিকেলে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ভোরে মৃত্যু হয় মৌসুমি আক্তারের।

মৃত নারীর স্বামী মাহাবুবুর রহমান জানিয়েছেন, তাঁর স্ত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। এ ছাড়া তাঁদের আড়াই বছরের একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। এখন মৌসুমি আক্তারকে তাঁর (মাহাবুবুর) শ্বশুরবাড়িতে দাফন করা হবে।

মাগুরার সিভিল সার্জন চিকিৎসক প্রদীপ কুমার সাহা জানিয়েছেন, ৩ জুলাই ওই নারীর কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। তিনিসহ এ পর্যন্ত জেলায় কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মৃত মানুষের সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ। গতকাল রোববার পর্যন্ত মাগুরায় ১৬৬ জন কোভিড রোগীর মধ্যে ৫২ জন সুস্থ হয়ে গেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0