ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহমুদা খানম প্রথম আলোকে বলেন, রোজীনা পারভীন দীর্ঘদিন থেকে শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন। পরে পরিবারের পক্ষ থেকে গত মার্চ মাসে চিকিৎসকদের কাছে নিয়ে যাওয়া হলে এপ্লাস্টিক এনিমিয়া (অবর্ধক রক্তশূন্যতা) ধরা পরে। এতে তাঁর রক্তের বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। তার জন্য বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট ট্রিটমেন্ট করানো প্রয়োজন ছিল। কিন্তু এর জন্য যে শক্তির প্রয়োজন ছিল তার ছিল না।

মাহমুদা খানম বলেন, কয়েকদিন আগে রোজীনা পারভীন অনেকটা সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। পরে আবার অবস্থার অবনতি হলে, তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

সহযোগী অধ্যাপক রোজীনা পারভীনের মৃত্যুতে বিভাগের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে তাঁকে সাতক্ষীরায় গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাঁকে দাফন করা হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন