default-image

মাদক মামলায় ক্যাসিনো সেলিম প্রধানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ পিছিয়েছে। আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের নতুন তারিখ ঠিক করেছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার ঢাকার চতুর্থ যুগ্ম জেলা জজ মইনুল হাসান ইউসুফ রনি এই দিন ঠিক করেন।

মামলার নথিপত্র বলছে, গত ৫ জানুয়ারি এই মামলায় সেলিম প্রধানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। অপর দুই অভিযুক্ত আসামি হলেন সেলিমের সহযোগী আখতারুজ্জামান ও রোমান।

আজ মঙ্গলবার সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য ছিল। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে তিনজন সাক্ষীকে আদালতে হাজির করা হয়। তবে মামলার আসামি রোমানকে আদালতে হাজির না করায় সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি। তবে আসামি সেলিম ও তাঁর সহযোগী আখতারুজ্জামানকে আদালতে হাজির করা হয়।

বিজ্ঞাপন

মামলার কাগজপত্রের তথ্য বলছে, ২০১৯ সালের ১৬ অক্টোবর ব্যাংককগামী একটি ফ্লাইট থেকে সেলিম প্রধানকে নামিয়ে আনার পর তাঁকে আটক করে র‍্যাব। তাঁর দুই সহযোগী আক্তারুজ্জামান ও রোকনকেও আটক করা হয়। পরে সেলিম প্রধানের অফিস ও বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। এ ঘটনায় গুলশান থানায় সেলিমসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও মানি লন্ডারিং আইনে পৃথক দুটি মামলা করে র‍্যাব। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলাটি তদন্ত করে গত বছরের ৭ জানুয়ারি সেলিম প্রধানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় র‍্যাব।

মামলার নথিপত্র বলছে, আসামি সেলিমের কাছ থেকে ২৯ লাখ ৫ হাজার ৫০০ টাকা, ৭৭ লাখ ৬৩ হাজার টাকার সমপরিমাণ ২৩টি দেশের মুদ্রা, ১২টি পাসপোর্ট, ১৩টি ব্যাংকের ৩২টি চেক, ৪০ বোতল বিদেশি মদ, একটি বড় সার্ভার, চারটি ল্যাপটপ ও দুটি হরিণের চামড়া উদ্ধার করা হয়। হরিণের চামড়া উদ্ধারের ঘটনায় বন্য প্রাণী সংরক্ষণ নিরাপত্তা আইনে তাঁকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন