খাগড়াছড়ি থেকে অপহৃত এক কলেজছাত্রীকে দ্রুত উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে তাঁর পরিবার।
গতকাল শুক্রবার খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অপহৃত ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা এই দাবি জানান। ওই ছাত্রীর পরিবার ও পার্বত্য বাঙালি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।
সংবাদ সম্মেলনে অপহৃত ছাত্রীর মা, চাচাতো ভাই, নানা ও পার্বত্য বাঙালি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক এস এম মাসুদ রানা বক্তব্য দেন।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, হতদরিদ্র পরিবারের ওই কলেজছাত্রী অভাব-অনটনের মধ্যে অনেক কষ্টে লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছেন। খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের ওই ছাত্রী প্রতিদিন দীঘিনালার মেরুং থেকে এসে ক্লাস করতেন। তাঁর বাবা ক্যানসারে আক্রান্ত। ১ মে তিনি বাবার জন্য ওষুধ নিতে খাগড়াছড়ি শহরে আসেন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ। এ ঘটনায় খাগড়াছড়ি সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হলেও পুলিশ এখনো ওই কলেজছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, খাগড়াছড়ি শহরে ওষুধ কিনতে এলে জালাল উদ্দিন ওরফে হৃদয় নামের এক যুবক তাঁর তিন-চারজন সহযোগীকে নিয়ে ওই কলেজছাত্রীকে অচেতন করে অপহরণ করে নিয়ে যান। সেদিন বিকেলে জালাল উদ্দিন ওই ছাত্রীর ছোট ভাইয়ের মুঠোফোনে যোগাযোগ করে জানান, তিনি ওই কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে ঢাকায় নিয়ে যাচ্ছেন। এ বিষয়ে পুলিশকে কিছু জানালে ওই ছাত্রীকে হত্যা করা হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয়।
খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সামসুদ্দীন ভূঁইয়া বলেন, অপহৃত ছাত্রীর মা গত মঙ্গলবার জালালকে আসামি করে মামলা করেছেন। ওই ছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন