খাগড়াছড়িতে স্ত্রী হত্যার দায়ে নিজাম উদ্দিন (৩১) নামের এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাঁকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আজ রোববার সকালে খাগড়াছড়ির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এবং জেলা ও দায়রা জজ রেজা মো. আলমগীর হাসান এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি নিজাম উদ্দিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে খাগড়াছড়ি শহরের শালবন গারাংগিয়া কমপ্লেক্স এলাকায় নিজ ঘরে স্ত্রী শিরিন আক্তারকে (২৪) শ্বাসরোধে হত্যা করেন নিজাম উদ্দিন। পরকীয়ায় বাধা দেওয়ার কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। ওই দিন শিরিনের বাবা মো. তাজুল ইসলাম বাদী হয়ে নিজাম উদ্দিনকে আসামি করে খাগড়াছড়ি সদর থানায় হত্যা মামলা করেন। চলতি বছরের ২৫ মার্চ নিজাম উদ্দিনকে আসামি করে পুলিশ আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি বিধান কানুনগো প্রথম আলোকে বলেন, আদালত রাষ্ট্রপক্ষের ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে এক বছরের মধ্যে এ রায় দেন।

রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে শিরিন আক্তারের বাবা মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘এ রায় যেন দ্রুত কার্যকর হয়। মেয়ের সুখের কথা ভেবে শালবন এলাকায় ১০ শতক জায়গা কিনে বাড়ি করে পর্যন্ত দিয়েছিলাম। আর কোনো মেয়ের বাবাকে যাতে এমন ঘটনার সম্মুখীন হতে না হয়।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0