ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় দুটি ইউনিয়ন থেকে হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ দেওয়া খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৩২ বস্তা চাল উদ্ধার করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ বুধবার দাওগাঁও ও গতকাল মঙ্গলবার তারাটী ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে এসব চাল জব্দ করা হয়।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আজ বিকেলে উপজেলার ৮ নম্বর দাওগাঁও ইউনিয়নের চন্দনীআটা ও এর আগের দিন মঙ্গলবার রাতে ৩ নম্বর তারাটী ইউনিয়নের বিরাশি গ্রামে অভিযান চালান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবিদুর রহমান। এ সময় তারাটী ইউনিয়নের চালের ডিলার শফিকুল ইসলাম বিপ্লবের স্ত্রী ফারজানা আক্তারকে আটক করা হয়।

চাল জব্দ করার বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবিদুর রহমান বলেন, সরকার হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ করা ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিতরণ বন্ধের নির্দেশ দেওয়ার পরও বিরাশি গ্রামের ডিলার শফিকুল ইসলাম তাঁর বাড়ির রান্নাঘর, রান্নাঘরের পেছনের জঙ্গল ও ঘরের বিভিন্ন স্থানে ২১ বস্তা চাল লুকিয়ে রেখেছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতে ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ২১ বস্তা চাল জব্দ করা হয়। এসব বস্তায় ২০ মণ চাল ছিল। এ ছাড়া আজ উপজেলার দাওগাঁও ইউনিয়নের চন্দনীআটা গ্রামের একটি বাড়ি থেকে ১১ বস্তা চাল জব্দ করা হয়। জব্দ করা চাল সংশ্লিষ্ট এলাকার ডিলার গুলশান মিয়ার। ওই ডিলার পলাতক। তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ অভিযান ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন