default-image

বাগেরহাট-৩ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হাবিবুন নাহার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। আজ সোমবার বিকেলে উপনির্বাচনের দায়িত্ব প্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান তালুকদার আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁকে নির্বাচিত ঘোষণা করেন।

গত ২৪ মে হাবিবুন নাহার নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে তা জমা দেন। এই আসন থেকে নির্বাচন করতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চিত্রনায়ক ও ব্যবসায়ী মো. শাকিল আহসান ওরফে শাকিল খান মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও পরে তা জমা দেননি।

নির্বাচন কমিশনের আঞ্চলিক কর্মকর্তা ও এই নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান তালুকদার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘বাগেরহাট-৩ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হাবিবুন নাহারের কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় তাঁকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করছি।’ এই আসন থেকে নির্বাচন করতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চিত্রনায়ক ও ব্যবসায়ী মো. শাকিল আহসান ওরফে শাকিল খান আগ্রহ দেখিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও পরে তিনি আর তা জমা না দেওয়ায় একক প্রার্থী হন হাবিবুন নাহার।

রামপাল ও মোংলা এই দুই উপজেলা নিয়ে জাতীয় সংসদের ৯৭ নম্বর আসন বাগেরহাট-৩। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে এ আসন থেকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য পদত্যাগ করেন তিনি। ১৫ মে নির্বাচনে তিনি মেয়র নির্বাচিত হন।

হাবিবুন নাহার ২০০৮ সালেও এই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। রিটার্নিং কর্মকর্তার ঘোষণার পর নবনির্বাচিত সাংসদ হাবিবুন নাহার বলেন, ‘এ আসন থেকে দ্বিতীয়বারের মতো সাংসদ নির্বাচিত হলেন। আবার নির্বাচিত হওয়ায় এই আসনের অসমাপ্ত উন্নয়নকাজগুলো সমাপ্ত করার অঙ্গীকার করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন