বিশ্বব্যাপী ২০১৪ সালে গণমাধ্যমের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরও বেড়েছে। প্যারিসভিত্তিক সাংবাদিকদের আন্তর্জাতিক সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস গতকাল বৃহস্পতিবার সংবাদপত্রের স্বাধীনতার বৈশ্বিক সূচক ২০১৫ প্রকাশ করে এই তথ্য দিয়েছে। সংগঠনটি বলেছে, ২০১৪ সালে এর আগের বছরের চেয়ে সংবাদপত্রের স্বাধীনতার পরিস্থিতি নাজুক হয়েছে।
বিশ্বের ১৮০টি দেশের সংবাদপত্রের স্বাধীনতার পরিস্থিতি তুলে ধরা হয় এই সূচকে। রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারসের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই দেশগুলোর মধ্যে দুই-তৃতীয়াংশ দেশে আগের বছরের তুলনায় ২০১৪ সালে সংবাদপত্রের স্বাধীনতার অবস্থা খারাপ হয়েছে।
সূচকে ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪৬। বাংলাদেশের স্কোর ৪২.৯৫। সূচক অনুসারে, আগের বছরের তুলনায় বাংলাদেশে সংবাদপত্রের স্বাধীনতার অবস্থার দৃশ্যত কোনো পরিবর্তন হয়নি।
গত চার বছরের ধারাবাহিকতা ধরে রেখে সূচকে ১৮০টি দেশের মধ্যে ফিনল্যান্ড প্রথম স্থানে আছে। গত বছরের মতো এর পরপরই আছে নেদারল্যান্ডস ও নরওয়ে। সূচকের একেবারে শেষের তিনটি দেশ হলো তুর্কমেনিস্তান (১৭৮), উত্তর কোরিয়া (১৭৯) ও ইরিত্রিয়া (১৮০)।
দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সূচকে সবচেয়ে এগিয়ে আছে ভুটান (৯২)। এরপর আছে মালদ্বীপ (১০৮), নেপাল (১২০), ভারত (১৪০), পাকিস্তান (১৫৮) ও শ্রীলঙ্কা (১৬৫)।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিভিন্ন দ্বন্দ্ব ও সংঘাতের ফলে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা খর্ব হয়েছে। আবার অনেক দেশে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা অজুহাতে এই স্বাধীনতা খর্ব করা হয়েছে। বিশ্বের একাধিক গণতান্ত্রিক দেশে এই অজুহাতে তথ্য জানার এবং জানানোর ক্ষেত্র সংকুচিত করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন