default-image

সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হয়েছে ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের সংগঠন গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (গবিসাস) সপ্তম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান।

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হয় ২০১৩ সালে। গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রান্সপোর্ট ইয়ার্ডে আয়োজন করা হয় বর্ষপূর্তির এ অনুষ্ঠান।

গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মো. রনি খার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা–২০ আসনের সাংসদ ও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা বেনজির আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন পরীক্ষ নিয়ন্ত্রক মীর মর্তুজা আলী বাবু ও দৈনিক অধিকারের সম্পাদক তাজবীর হোসাইন সজীব। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান উপদেষ্টা গবিসাসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আসিফ আল আজাদ, কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সহসভাপতি (ভিপি) মো. জুয়েল রানা, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মূসা প্রমুখ।

বেনজির আহমেদ বলেন, ‘সাংবাদিকরা আয়নার মতো কাজ করে। আমাদের চারপাশে যা কিছু ঘটে সেগুলো তুলে নিয়ে আসা সাংবাদিকদের জন্য একটা বড় চ্যালেঞ্জ। আমিও একসময় সাংবাদিকতার ছাত্র ছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমি শেষ করতে পারিনি। ইতিহাসে মাস্টার্স করেছি। কাজেই এটি একটি ইন্টারেস্টিং সাবজেক্ট।’

বেনজির আহমদ আরও বলেন, সাংবাদিকদের অনেক প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হয়। সেটা রাজনৈতিকভাবে হোক বা সামাজিকভাবে। বিশেষ করে যুদ্ধের সময়, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সব থেকে বেশি সাংবাদিক প্রাণ হারান। যাঁরা এই পেশায় কাজ করছেন, তাঁদের আমি ধন্যবাদ জানাই।

সাংসদ বলেন, ‘আমি ইতিমধ্যে জেনেছি যে আপনাদের কিছু কম্পিউটারের ঘাটতি আছে। আমি চেষ্টা করব আপনাদের কিছু কম্পিউটার দেওয়ার জন্য। আপনারা সাংবাদিক সমিতি থেকে একটা দরখাস্ত দেন, আমি ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে কিছু কম্পিউটারের ব্যবস্থা করে দেওয়ার চেষ্টা করব। আর মুজিব বর্ষে বৃক্ষরোপণের জন্য আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে আপনাদের কাছে দুই হাজার ফলদ, বনজ ও ঔষধি বৃক্ষের চারা হস্তান্তর করব।’

default-image

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রান্সপোর্ট চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে সমিতির আয়োজনের শুরু হয়। শেভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের ট্রান্সপোর্ট ইয়ার্ড থেকে বাদামতলা, প্রশাসনিক ভবন, বিশ্ববিদ্যালয়ের গেট প্রদক্ষিণ করে ট্রান্সপোর্ট ইয়ার্ডে ফিরে আসে। এরপর বেলুন উড্ডয়নের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুর্ত্তজা আলী বাবু ও সম্পাদক তাজবীর সজীবসহ উপস্থিত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পাস সাংবাদিকতায় বর্ষসেরা তিন সাংবাদিককে স্মারক প্রদান করা হয়। এবার এ সম্মাননা পুরস্কার পেয়েছেন ফায়জুন নাহার সিতু (সেরা ফিচার লেখক), অনিক আহমেদ (সেরা ফিচার লেখক) ও রোকনুজ্জামান মনি (সেরা প্রতিবেদক)। এ ছাড়া উপদেষ্টামণ্ডলী, প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের সমিতির পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেস্ট দেওয়া হয়।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালায় ছিল মধ্যাহ্নভোজ, আনন্দ শুভযাত্রা, বেলুন উড্ডয়ন, ফিচার প্রদর্শনী, কেক কাটা, আতসবাজি, ফানুস উৎসব, বাংলা ফাইভের রকধাঁচের গান পরিবেশন ও গণ বিশ্ববিদ্যালয় মিউজিক কমিউনিটি সংগঠনের সাংস্কৃতিকসন্ধ্যা। সাংস্কৃতিক পর্বে প্রথমে বাংলা ফাইভ ব্যান্ড দলের গান পরিবেশন করেন সিনা হাসান ও তাঁর দল। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের মিউজিক কমিউনিটি গান পরিবেশন করে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন