default-image

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কাভার্ড ভ্যান ও প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত ও ছয়জন হয়েছেন। আজ শুক্রবার ভোরে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শহরের অদূরে নুনদহ ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার সাহেদ মিয়া (৪০) ও কাজল মিয়া (৩২) এবং গঙ্গাচড়া উপজেলার শাকিল ইসলাম (৫৬)। তাঁরা ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। আহত ব্যবক্তিদের উদ্ধার করে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের পরিচয় জানা যায়নি। হতাহত ব্যক্তিরা টাইলসবোঝাই কাভার্ড ভ্যানের যাত্রী ছিলেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজ ভোরে টাইলসবোঝাই একটি কাভার্ড ভ্যান ঢাকা থেকে রংপুর যাচ্ছিল। ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে ভ্যানটি নুনদহ ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিকে থেকে আসা একটি প্রাইভেট কারের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। প্রাইভেট কারটি রংপুর থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। এই ঘটনায় কাভার্ড ভ্যানটি উল্টে যায় এবং প্রাইভেট কারের সামনের অংশ দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে কাভার্ড ভ্যানে থাকা তিনজন নিহত এবং ছয়জন আহত হন। প্রাইভেট কারের কেউ আহত হননি।

এ দুর্ঘটনার কারণে ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে সকাল নয়টা পর্যন্ত ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে কাভার্ড ভ্যান ও প্রাইভেট কারটি উদ্ধার করলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

গাইবান্ধা ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক এনামুল হক জানান, আজ ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গোবিন্দগঞ্জ ও গাইবান্ধা ফায়ার সার্ভিসের দুটি দল হাইওয়ে পুলিশের সঙ্গে উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়। এ সময় দুর্ঘটনাকবলিত বন্ধ থাকা কাভার্ড ভ্যানের মধ্যে মৃত অবস্থায় তিনজনকে ও আহত অবস্থায় ছয়জনকে উদ্ধার করা হয়।

গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল কাদের জিলানী বলেন, এ নিয়ে থানায় মামলা হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত কাভার্ড ভ্যান ও প্রাইভেট কারটি থানায় আনা হয়েছে। এ ছাড়া নিহত ব্যক্তিদের লাশ থানায় রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0