গাড়িটির পিছু নিয়েছিলেন ইউএনও, অবাধ্য চালককে দণ্ড

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম–কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়া বাইপাস সড়কে বিপজ্জনকভাবে ও অন্যান্য গাড়িকে অতিক্রম করে চালানোর দায়ে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত সৌদিয়া সিল্ক গাড়ির চালক মোহাম্মদ মোতালেবকে (৫৫) দুই মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাবিবুল হাসান ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ দণ্ড দেন।

আজ দুপুরে কক্সবাজার থেকে সৌদিয়া সিল্ক (চট্ট-মেট্রো-ব-১১-১১৬৭) পরিবহনের যাত্রীবাহী এই বাস চট্টগ্রামের দিকে যাচ্ছিল। বাসের চালক পটিয়া বাইপাস সড়কের একাধিক স্থানের ডিভাইডারের উল্টো পথ দিয়ে বিপজ্জনক গতিতে চালাচ্ছিলেন। ইউএনও হাবিবুল হাসান নিজে এ পরিস্থিতি দেখে গাড়িটির পেছনে পেছনে এসে পটিয়া পৌরসভার ইন্দ্রপুল এলাকায় গাড়িটি জব্দ করেন।

গাড়ির যাত্রী নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক মুরাশত হোসেন ইউএনও এবং প্রথম আলোকে বলেন, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে কক্সবাজার থেকে গাড়িটি ছাড়ার পরই দ্রুতগতিতে চালক চালাচ্ছিলেন। এমনকি তিনি বেশ কয়েকবার অন্য গাড়িতে অতিক্রম করেন। চালককে এভাবে গাড়ি না চালাতে যাত্রীরা অনুরোধ করলে তিনি উল্টো ধমক দেন।

ইউএনও হাবিবুল হাসান বলেন, সৌদিয়া সিল্ক গাড়িটি পটিয়া বাইপাস দিয়ে অত্যন্ত বিপজ্জনক ও একাধিক ডিভাইডার উল্টো পথে চালানোর দায়ে চালককে দুই মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, যাত্রীদেরও একই অভিযোগ। তাঁর গাড়ি চালানোর যোগ্যতা নেই।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন