default-image

গুগল, ইয়াহু, আমাজন, ফেসবুক, ইউটিউবসহ অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে বিজ্ঞাপন, ডোমেইন বিক্রি, লাইসেন্স ফিসহ অন্যান্য পরিশোধিত অর্থের বিপরীতে প্রচলিত আইন অনুসারে অবিলম্বে ট্যাক্স, ভ্যাটসহ সব ধরনের রাজস্ব আদায় করতে নির্দেশ দিয়ে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।
আজ রোববার বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই রায় দেন। বেঞ্চ এর আগে রুল যথাযথ বলেও ঘোষণা করেন।
দেশীয় বিজ্ঞাপন প্রচার ও ডোমেইন বিক্রি করে গুগল, ইয়াহু, আমাজন, ইউটিউব, ফেসবুকসহ এ ধরনের অনলাইনভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম যে আয় করছে, তার বিপরীতে রাজস্ব আদায়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের ছয় আইনজীবী ২০১৮ সালের ৯ এপ্রিল হাইকোর্টে রিট করেন। প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ওই বছরের ১২ এপ্রিল হাইকোর্ট রুল দেন। আজ রায় হলো।

বিজ্ঞাপন

রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবির, সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ কাওছার ও মো. মাজেদুল কাদের। রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ওয়ায়েস আল হারুনী এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে আইনজীবী শামীম খালেদ আহমেদ শুনানিতে ছিলেন।

ওই নির্দেশনাসহ রায়ে পাঁচটি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান আইনজীবী হুমায়ন কবির। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক ও বিটিআরসিসহ সংশ্লিষ্ট সরকারি দপ্তরকে ওই নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। তিনি আরও জানান, রায়ে অপর এক নির্দেশনায় ইন্টারনেটভিত্তিক কোম্পানিগুলোকে বাংলাদেশ থেকে গত পাঁচ বছরে পরিশোধিত অর্থের বিপরীতে আনুপাতিক হারে বকেয়া রাজস্ব আদায় করতে হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0