সরকারি খাদ্যগুদামে জায়গার অভাব ও অবরোধের কারণে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলায় আমন চাল সংগ্রহ কার্যক্রম এক মাস ধরে বন্ধ রয়েছে। এতে খাদ্য বিভাগের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ চালকলের মালিকেরা গুদামে চাল সরবরাহ দিতে না পারায় অর্থসংকটে পড়েছেন।
গুদামে চাল ঢুকাতে না পারায় চালকলের মালিকেরা হাটবাজার থেকে চাল কেনাও বন্ধ করে দিয়েছেন। এর প্রত্যক্ষ প্রভাব সরাসরি ধানের বাজারদরের ওপর পড়েছে। এতে ধানের দাম কমে যাওয়ায় কৃষকেরাও বিপাকে পড়েছেন।
পীরগঞ্জ সরকারি খাদ্যগুদাম সূত্রে জানা গেছে, এবার উপজেলায় আমন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ হাজার ৯০০ মেট্রিক টন। গত ৭ ডিসেম্বর চাল সংগ্রহ অভিযানের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন স্থানীয় সাংসদ ইয়াসীন আলী।
পীরগঞ্জ সরকারি খাদ্যগুদাম সূত্রে আরও জানা গেছে, উপজেলা শহরের সরকারি গুদামের সাধারণ ধারণক্ষমতা সাড়ে চার হাজার এবং সর্বোচ্চ ধারণক্ষমতা ছয় হাজার মেট্রিক টন। গত ৪ জানুয়ারি পর্যন্ত গুদামের ধারণক্ষমতা ছাড়িয়ে ৬ হাজার ৪৯৯ মেট্রিকটন চাল ও গম মজুত রয়েছে। অবরোধ শুরু হওয়ার পর গুদাম থেকে কোনো খাদ্যশস্য স্থানান্তর করা যাচ্ছে না। এ কারণে গুদামে জায়গা না থাকায় চালকলের মালিকদের কাছ থেকে চাল সংগ্রহ করা যাচ্ছে না।
পীরগঞ্জ শহরের চালকলের মালিক মাহাবুব আলম বলেন, ‘ব্যাংকের সিসি ঋণ ও ব্যবসার টাকায় কেনা আট হাজার মণ ধান আমার মিলে মজুত আছে। ওই ধান পড়ে থাকায় প্রতি মাসে ৭৫ হাজার টাকার সুদ গুনতে হচ্ছে। ধানগুলো থেকে চাল করে গুদামে দিতে এবং বাইরে পাঠাতে পারলে ব্যাংকের টাকা শোধ করে সুদের বোঝা কমাতে পারতাম। অথচ প্রায় অর্ধকোটি টাকার ধান পড়ে আছে। আমরাও হাত গুটিয়ে বসে আছি।’
আনোয়ার হোসেন নামের অপর এক চালকলমালিক বলেন, ‘চাল মিলের ঘরে পড়ে আছে এক মাস থেকে। আমার ব্যবসার সব পুঁজিই আটকে আছে। টাকার অভাবে বাজার থেকে চালও কিনতে পারছি না।’
উপজেলা চালকল মালিক গ্রুপের সভাপতি ইমদাদুর রহমান বলেন, চালকলগুলোতে প্রচুর চাল মজুত আছে। গুদামে ঢোকাতে না পারায় বিল করতে পারছেন না। এ ছাড়া অবরোধ-হরতালের কারণে ট্রাকে করে চাল বাইরেও পাঠানো যাচ্ছে না।
পীরগঞ্জ খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) তৈয়বুর রহমান বলেন, পীরগঞ্জের ২৮২টি চালকলের মালিক খাদ্য বিভাগের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। গত ৭ থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১ হাজার ৭০৯ দশমিক ৩০০ মেট্রিকটন চাল সংগ্রহ হওয়ার পর গুদামে জায়গার অভাব দেখা দেয়। অবরোধের কারণে ৪ জানুয়ারি থেকে চাল সংগ্রহ বন্ধ রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন