নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে নারায়ণগঞ্জের ওসমান পরিবার আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি, খুন ও রাহাজানি করে বেড়ায়। এর প্রতিবাদ যাঁরা করেন, তাঁদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা শামীম ওসমানদের পুরোনো অভ্যাস।
গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নারায়গঞ্জ শহরের ২ নম্বর রেলগেট এলাকায় জেলা ও শহর যুবলীগে উদ্যেগে ‘ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা’ মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের মুক্তির দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আনোয়ার হোসেন এসব কথা বলেন। শামীম ওসমানকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘হত্যা, গুম, খুন ও চাঁদাবাজি ছেড়ে সুস্থ ধারায় ফিরে আসুন। জনগণের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য আসুন ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজনীতি করি।’
কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক রোকন উদ্দিন আহমেদ বলেন, ত্বকী হত্যা মামলায় যাঁরা সক্রিয় আন্দোলন করছেন, তাঁদের মুখ বন্ধ করার জন্যই ক্যাঙ্গারু পারভেজের গুমের ঘটনায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। জেলা যুবলীগের সভাপতি আবদুল কাদির বলেন, ক্যাঙ্গারু পারভেজের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য কেন্দ্রীয় যুবলীগ থেকে তাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এই শীর্ষ সন্ত্রাসীর জন্য আজ শামীম ওসমান মায়াকান্না কাঁদছেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন