গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের শ্রীমুখ গ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম মোফাজ্জল হোসেন প্রধান (৮০)। তিনি শ্রীমুখ গ্রামেরই বাসিন্দা। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, পেশায় কৃষক এই ব্যক্তি বর্তমানে কোনো রাজনৈতিক দলে সক্রিয় নন। শ্রীমুখ গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দা সূত্রে জানা গেছে, স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় মোফাজ্জল হোসেন বিভিন্ন অপকর্মের সঙ্গে জড়িত ছিলেন, যা এলাকার সবাই জানেন।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মেহেদী হাসান প্রথম আলোকে বলেন, মোফাজ্জল হোসেনের বিরুদ্ধে স্বাধীনতাযুদ্ধ চলাকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মামলা রয়েছে। সেই মামলায় কয়েক দিন আগে ট্রাইব্যুনাল থেকে তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা গোবিন্দগঞ্জ থানায় আসে। সেই পরোয়ানায় সকালে শ্রীমুখ গ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ওসি জানান, মোফাজ্জল হোসেনের বিরুদ্ধে কে, কবে, কোথায় মামলা করেছেন, তা তিনি জানেন না। আদালত তাঁকে জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।
এ ব্যাপারে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার নুরুল ইসলাম আজাদ বলেন, মোফাজ্জল হোসেন প্রধান রাজাকারদের কমান্ডার ছিলেন। তিনি স্বাধীনতাবিরোধী নানা কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0