গোয়ালন্দে করোনা উপসর্গ নিয়ে স্কুলশিক্ষকের মৃত্যু

বিজ্ঞাপন

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ আইডিয়াল হাইস্কুলের একজন সহকারী শিক্ষক করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে দ্রুত ফরিদপুর নেওয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্সেই তিনি মারা যান।

ওই শিক্ষক (৫৩) গোয়ালন্দ পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড কলেজপাড়ার বাসিন্দা। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে তাঁর জানাজা শেষে পৌরসভার কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়।

স্কুলশিক্ষকের ভগ্নিপতি একজন কলেজশিক্ষক বলেন, ওই শিক্ষক দীর্ঘদিন ডায়াবেটিস, হৃদ্‌রোগসহ কিডনি রোগে ভুগছিলেন। তিনি স্ট্রোকও করেছিলেন। শুক্রবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি দেখে দ্রুত অ্যাম্বুলেন্সযোগে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের উদ্দেশে রওনা করেন তাঁরা। ফরিদপুর পৌঁছানোর আগেই পথে তিনি মারা যান।

স্কুলশিক্ষকের ছেলে জানান, কয়েক দিন ধরে তাঁর বাবার জ্বর, শরীর ব্যথা ও কাশি ছিল। মৃত্যুর আগের দিন তাঁর জ্বর ছিল না। তবে শরীর ও গলাব্যথা অনুভব করছিলেন। তাঁর বাবার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আসিফ মাহমুদ জানান, স্কুলশিক্ষক রিয়াজুল ইসলামের পরিবারের সব সদস্যকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে। রোববার তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন