default-image

গ্যাসের আবাসিক গ্রাহকদের প্রিপেইড মিটার স্থাপন কার্যক্রম শুরু হয় ২০১১ সালে। ৯ বছরে মাত্র ২ লাখ ৭৩ হাজার প্রিপেইড মিটার স্থাপন করা হয়েছে। মোট গ্রাহক প্রায় ৪৩ লাখ। মিটার বসানোর কার্যক্রমে ধীর গতিতে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

জাতীয় সংসদ ভবনে বৃহস্পতিবার কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা সূত্র জানায়, গ্যাসের অপচয় রোধে ২০১১ সালে পেট্রোবাংলার আওতাধীন ছয়টি গ্যাস বিতরণ কোম্পানি প্রিপেইড মিটার স্থাপন কার্যক্রম শুরু করে। সংসদীয় কমিটি মনে করছে, এই কাজ যে গতিতে হওয়ার কথা, তা হচ্ছে না।

বিজ্ঞাপন

কমিটির সভাপতি শহীদুজ্জামান সরকার প্রথম আলোকে বলেন, পাঁচ লাখ গ্রাহকও প্রিপেইডের আওতায় আসেনি। তাহলে ৪০ লাখের বেশি গ্রাহককে এই মিটার দিতে কত দিন লাগবে?

বৈঠকে কমিটির সদস্য নূরুল ইসলাম তালুকদার, আছলাম হোসেন সওদাগর, খালেদা খানম, বেগম নার্গিস রহমান ও নুরুজ্জামান বিশ্বাস অংশ নেন।

মন্তব্য করুন