default-image

দক্ষ কোডারস ও ডেভেলপার খুঁজতে গ্রামীণফোন আয়োজিত ‘কোডমাস্টার্স হ্যাকাথন’ আয়োজনে আজ মঙ্গলবার ১০ জন বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, বিজনেস অ্যানালিস্ট, আইওএস অ্যাপ্লিকেশন, কোয়ালিটি অ্যাস্যুরেন্স ইঞ্জিনিয়ার এবং ব্যাকএন্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগে প্রত্যেক বিজয়ী পুরস্কার হিসেবে এক লাখ টাকা পেয়েছেন এবং রানারআপরা পেয়েছেন প্রত্যেকে পঞ্চাশ হাজার টাকা করে।

পুরস্কারজয়ীরা হলেন খন্দকার আশিকুর রহমান, মো. তৌহিদুল ইসলাম, সাদমান মাহমুদ, রাইসা ফারিহা, নাগিব বিন আজাদ, মো. নাজমুল ইসলাম, অমিত সাহা, মোনেম তাজওয়ার, শহিদুল ইসলাম ও তাসিন ইশমাম।

বিজ্ঞাপন

গ্রামীণফোনের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘কোডমাস্টার্স’ হ্যাকাথনে ১৩০০ জন নিবন্ধন করেন। প্রথম ধাপে ৪০০ প্রতিযোগীকে নির্বাচন করার পর ৬০ জন হ্যাকাথন দ্বিতীয় ধাপে অংশগ্রহণের সুযোগ পান।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ‘ডিজিটাইজেশন অ্যান্ড গ্রোথ প্রসপেক্টস অব বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক প্যানেল আলোচনার আয়োজন করা হয়। এতে অংশ নেন বেসিসের প্রেসিডেন্ট সৈয়দ আলমাস কবীর, প্রথম আলোর যুব কর্মসূচি ও ইভেন্টস বিভাগের প্রধান মুনির হাসান, এলআইসিটির পলিসি অ্যাডভাইজার সামি আহমেদ, গ্রামীণফোনের হেড অব ডিজিটাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজি সোলায়মান আলম, প্রতিষ্ঠানটির প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা সৈয়দ তানভীর হোসেন এবং এর হেড অব কমিউনিকেশনস খায়রুল বাশার।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ আলমাস কবীর তরুণদের ভবিষ্যৎ প্রযুক্তি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসহ ডিজিটাল প্রযুক্তিতে দক্ষতা বৃদ্ধি করে ভবিষ্যতের জন্য তৈরি হওয়ার আহ্বান জানান।

গ্রামীণফোনের প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা সৈয়দ তানভীর হোসেন বলেন, ‘২০২০-এর ডিজিটাল নিনজা “কোডমাস্টার্স” হ্যাকাথন ফ্ল্যাগশিপ আয়োজনে আমরা দেশের পেশাজীবী ও ডেভেলপারদের কাছ থেকে বিপুল সাড়া পেয়েছি। বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন