স্বাস্থ্যসেবা

ঘরে বসে ওষুধ

বিজ্ঞাপন
default-image

মোহাম্মদপুরের বাসিন্দা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকুরে তাহমিনুল হক। প্রায় দুই মাস আগে তাঁর শিশুর জরুরি ওষুধের প্রয়োজন হয়েছিল। ওই সময় তিনি ছিলেন বনানীতে, তাঁর অফিসে। বাইরেও প্রচণ্ড বৃষ্টি। তাঁর স্ত্রী শিশুকে রেখে বাইরে যেতে পারছিলেন না। এ সময় তিনি ইন্টারনেটে খুঁজে দেখলেন বাড়িতে দরকারি ওষুধ পৌঁছে দেওয়ার কোনো প্রতিষ্ঠান আছে কি না। পেয়ে গেলেন এক প্রতিষ্ঠানকে। তাৎক্ষণিক ওষুধের অর্ডার দিলেন। বাড়িতে ফোন করে জানলেন, মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যেই তাঁর বাসায় ওষুধ পৌঁছে গেছে।
এখন এমন বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান হয়েছে, যারা রাজধানীতে মানুষের ঘরে ঘরে ওষুধ পৌঁছে দিচ্ছে। ওই প্রতিষ্ঠানগুলো জানিয়েছে, তাদের গ্রাহকসংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। অনেকেই ঘরে বসে অর্ডার করে ওষুধ পাচ্ছেন। তাহমিনুল জানালেন, তিনি ওই ঘটনার পর থেকে ‘ওষুধ ডট কম’ নামের (www.ousud.com) একটি অনলাইনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান থেকে হোম ডেলিভারির মাধ্যমে ওষুধ কেনেন। বাজারে গিয়ে ওষুধ কেনার ঝক্কি নেই, এ ছাড়া সময়ও বাঁচে।
ধানমন্ডি ৯/এ–তে ওষুধ ডট কমের দোকানে গিয়ে জানা গেল, তাদের ধানমন্ডি ও বনানীতে দুটি ওষুধের দোকান আছে। এই প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের একজন চিকিৎসক ইশতিয়াক আহমেদ বললেন, অনলাইনে, ফেসবুক, ভাইবার, খুদে বার্তার (এসএমএস) মাধ্যমে তাঁরা ওষুধ হোম ডেলিভারি দিয়ে থাকেন। ওষুধের ব্যবস্থাপত্র অনলাইনে, ফেসবুকে ও ভাইবারে আপলোডের ব্যবস্থা আছে। তা দেখে গ্রাহককে তাঁর বাড়ির ঠিকানা বা কাঙ্ক্ষিত ঠিকানায় ওষুধ পৌঁছে দেওয়া হয়। তাঁদের প্রতিষ্ঠান ৩৫০ টাকার নিচে ওষুধ কিনলে সার্ভিস বাবদ ৫০ টাকা এবং ৩৫০ টাকার বেশি ওষুধ অর্ডার করলে কোনো সার্ভিস চার্জ নেয় না। ধানমন্ডিতে কোনো অর্ডার হলে তাতেও সার্ভিস চার্জ দিতে হয় না। এ ছাড়া ওষুধে ৫ শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়। সকাল ৯টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত অর্ডার নেওয়া হয়। ডেলিভারি দেওয়া হয় দুপুর ১২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত। তাঁরা মোটরসাইকেলে করে ওষুধ পৌঁছে দেন। টাকা নেওয়া হয় ওষুধ পৌঁছে দেওয়ার পর।
অনলাইনে ওষুধ বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছে অ্যাপোলো হাসপাতালের ‘অ্যাপোলো ফার্মাসি’। প্রতিষ্ঠানটির জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক আবদুর রহমান জানালেন, তাঁরা বসুন্ধরা, গুলশান, বনানী ও উত্তরার বিভিন্ন স্থানে ওষুধ হোম ডেলিভারি দিচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে ন্যূনতম ৫০০ টাকার ওষুধ অর্ডার করতে হয়। প্রায় তিন বছর ধরে তাঁরা অনলাইনের মাধ্যমে ও ফোনে ওষুধ হোম ডেলিভারি করছেন। প্রতি মাসে গড়ে ২০০ জন এ সেবা নিচ্ছেন বলে জানালেন তিনি। তাঁদের হোম ডেলিভারি সেবা পাওয়া যাবে সকাল নয়টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত।

ওষুধের পাশাপাশি নানা ধরনের চিকিৎসা সরঞ্জামও পৌঁছে দিচ্ছে ‘উপহার বিডি ডট কম’ (www.upoharbd.com) নামের একটি অনলাইনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির অপারেশন নির্বাহী আনিস আহমেদ জানান, হুইলচেয়ার, সুগার ফ্রি খাবার, রক্তের চাপ মাপার যন্ত্র, কমোড চেয়ারসহ চিকিৎসাসংক্রান্ত নানা সরঞ্জাম তাঁরা বাড়িতে পৌঁছে দেন। সাড়াও পাচ্ছেন ভালো। এ ছাড়া সিদ্ধেশ্বরী রোড, মোহাম্মদপুর, মিরপুরসহ বিভিন্ন এলাকায়ও কিছু কিছু ওষুধের দোকান ফোন বা এসএমএসের মাধ্যমে ফরমাশ পেলে ওই হল্লার বাসাবাড়িতে ওষুধ পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন