বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম মহানগর সরকারি কৌঁসুলি মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, আসামি ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে কিছুদিন আগে জামিন না পেয়ে মহানগর দায়রা জজ আদালতে মিস মামলা করে জামিনের আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। আসামিকে নির্দোষ দাবি করেন তাঁর আইনজীবী। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে দেন।

গত ১৫ অক্টোবর দুপুরে নগরের আন্দরকিল্লা জে এম সেন হল পূজামণ্ডপে হামলা, ফটকের ব্যানার ছিঁড়ে ফেলা ও মণ্ডপে ঢিল ছোড়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পরদিন পুলিশ বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় ৮৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করে। মামলায় অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে ৫০০ জনকে।

পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে যুব-ছাত্র অধিকার পরিষদের ৯ জন নেতা-কর্মীসহ ১০০ জনকে গ্রেপ্তার করে। তাঁদের মধ্যে দুজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন