বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) লোকমান হোসেন চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, রায়ের আদেশে বিচারক আসামি মো. আজমকে মৃত্যুদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। একই সঙ্গে আজমের মা ফরিদা বেগম ও তাঁর বোন কামরুন নাহারকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। আসামি আজম দীর্ঘদিন থেকে পলাতক। তাঁর মা ও বোন এত দিন হাজির থাকলেও আজ রায় ঘোষণার দিন থেকে ‘পলাতক’ হয়েছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন