default-image

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে ভালো নির্বাচন হয়েছে। তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে নির্বাচনে সহিংসতার অনেক ঘটনা ঘটে। তবে চট্টগ্রামে কমই হয়েছে। দেশ উন্নত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটের প্রতি মানুষের অনীহাও বাড়ছে বলে মনে করেন সচিব।

আজ বুধবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ইসি সচিব সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

ইসি সচিব মো. আলমগীর বলেন, কত শতাংশ ভোট পড়েছে, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে ভোটার উপস্থিতি তাঁদের আশার চেয়ে কম হয়েছে।

ভোটের প্রতি মানুষের অনীহা বাড়ছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে মো. আলমগীর বলেন, ‘কিছুটা বলা যায়। এখনকার নাগরিকেরা কেন যেন রাষ্ট্রের প্রতি যে তাঁদের একটা দায়িত্ব আছে, ভোট যে তাঁদের অধিকার, এটা তাঁরা মনে করছেন না। ভোটের দিন মনে করেন, কষ্ট করে কেন যাব, ভোট দিয়ে আমার লাভ কী? এ ধরনের একটা মনমানসিকতা হয়ে গেছে। এটা দেখবেন যে উন্নত বিশ্বে ভোটের ক্ষেত্রে এ রকম হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেত্রে দেখবেন, এত উন্নত তারা, সব ক্ষেত্রে উন্নত। কিন্তু ভোটের ক্ষেত্রে দেখবেন, ভোট দিতে যায় না বেশির ভাগ মানুষ। আমাদের দেশেও অনেকটা ওই রকম। উন্নত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এই লক্ষণ দেখা দিয়েছে মনে হয়। মানসিকতার বদল হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

ইসি সচিব মো. আলমগীর আরও বলেন, ভালো নির্বাচন হয়েছে। যাঁরা ভোট দিতে এসেছেন, তাঁরা সুন্দরভাবে ভোট দিতে পেরেছেন। দুটি কেন্দ্রে উশৃঙ্খল ব্যক্তিরা, যাঁরা ইভিএমে ভোট চান না, তাঁরা আক্রমণ চালিয়েছেন।

ভোটে সহিংসতার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মো. আলগীর বলেন, তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে ভোটে এ ধরনের অনেক ঘটনা ঘটে। সে হিসেবে চট্টগ্রামে কমই হয়েছে। তিনি বলেন, ৭৩৫টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে মাত্র ২টি কেন্দ্রে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। ওই দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত করা হয়েছে। তিনি বলেন, যেসব দুস্কৃতকারী ইভিএম চায় না, ইভিএমে জাল ভোট দেওয়া যায় না, এ কারণে আক্রমণ করে। ভোট সুষ্ঠু করার জন্য যত রকম পদক্ষেপ নেওয়ার দরকার ছিল, নেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন