default-image

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার’-এ (গবেষণাকেন্দ্র) গবেষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ইতিহাসবিদ অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন। আজ শনিবার দুপুরে ৫২৯তম সিন্ডিকেট সভায় (এক্সট্রা অর্ডিনারি) তাঁকে নিয়োগ দেওয়া হয়। তিনি যোগদানের তারিখ থেকে দুই বছর এ পদে থাকবেন।

বিষয়টি প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম মনিরুল হাসান। তিনি বলেন, যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে, সিন্ডিকেট সভার অনুমোদনের ভিত্তিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবেক অধ্যাপক মুনতাসীর মামুনকে ওই পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০১৯ সালে বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদটি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। ওই বছরের ৩ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু চেয়ার নির্বাহী কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সভায় ওই পদের জন্য তৈরি নীতিমালার অনুমোদন করা হয়। একই দিন তৎকালীন উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীকে বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদে নিয়োগ দেওয়ার জন্য কমিটি সুপারিশ করে। কমিটির সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে ৭ মার্চ ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী এ পদে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তবে সিন্ডিকেট সভার মাধ্যমে নিয়োগের বিষয়টি অনুমোদন না নেওয়ায় তাঁর এই পদে বসা নিয়েই বিতর্ক শুরু হয়। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান উপাচার্য ও তৎকালীন সহ–উপাচার্য শিরীণ আখতার ওই দায়িত্ব গ্রহণের অনুষ্ঠানে অংশ নেননি। অবশ্য বিতর্কের বিষয়ে ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী সে সময় প্রথম আলোকে বলেছিলেন, এ পদে তিনি কোনো ধরনের বেতন-ভাতা নেবেন না। যেহেতু কোনো বেতন-ভাতা তিনি নিচ্ছেন না, সেহেতু সিন্ডিকেটের অনুমোদনের প্রয়োজন নেই। ২০১৫ সালের ১৫ জুন থেকে ২০১৯ সালের ১৩ জুন পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

এরপর গত বছরের সেপ্টেম্বরে ৫২৬তম সিন্ডিকেট সভায় সাবেক উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর বঙ্গবন্ধু চেয়ারের নিয়োগটি বাতিল করে দেওয়া হয়। পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদে নিয়োগের জন্য ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার নির্বাহী কমিটিতে’ নতুন করে আরও দুই সদস্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়। আগে এটি পাঁচ সদস্যের ছিল। কমিটির নতুন সদস্যরা হলেন সমাজবিজ্ঞানী অনুপম সেন ও কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। সর্বশেষ কমিটি বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদে মুনতাসীর মামুনের নাম প্রস্তাব করে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৭ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের ৫১০তম সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কীর্তি নিয়ে গবেষণা ও তাঁর স্মৃতি সংরক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদ সৃষ্টির সুপারিশ করা হয়।

জানতে চাইলে সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক কাজী এস এম খসরুল আলম কুদ্দুসী প্রথম আলোকে বলেন, ‘অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন একজন প্রথিতযশা গবেষক ও ইতিহাসবিদ। এমন যোগ্য ব্যক্তির হাত ধরে বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি ও জীবনচর্চা আরও প্রসারিত হবে। তাঁর গবেষণা কার্যক্রমের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় আরও এগিয়ে যাবে।’

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন