default-image

ঢাকা সেনানিবাসের আর্মি গলফ গার্ডেনে জলসিঁড়ি আবাসন প্রকল্পের প্লট সশস্ত্র বাহিনীর কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল মঙ্গলবার লটারির মাধ্যমে ৬ হাজার ৬৫টি প্লটের বরাদ্দ দেওয়া হয়। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবর বাসসের।
প্রায় দুই হাজার একর জমির ওপর জলসিঁড়ি আবাসন প্রকল্পে রাস্তার জন্য ২৮ শতাংশ, লেকের জন্য ১১ শতাংশ এবং পার্ক ও খেলার মাঠের জন্য ৮ শতাংশ জায়গা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।
প্লট হস্তান্তর অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল ইকবাল করিম ভূইয়া এবং জলসিঁড়ি আবাসন প্রকল্পের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো. মাসুদ বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারিক আহমেদ সিদ্দিক, নৌবাহিনীর প্রধান ভাইস অ্যাডমিরাল এম ফরিদ হাবিব ও বিমানবাহিনীর প্রধান এয়ার মার্শাল মোহাম্মদ ইনামুল বারীসহ ঊর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ: নেপাল, ভুটান ও মালদ্বীপের সফররত মন্ত্রীদের একটি দল এবং ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) মহাসচিব গতকাল সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদ ভবনের কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।
ডিজিটাল কর্মসূচিতে বাংলাদেশের অগ্রগতির উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন নেপালের তথ্য ও যোগাযোগমন্ত্রী মিনেন্দ্রা রিজাল, ভুটানের লিওনপো ডি এন দুঙ্গায়েল এবং মালদ্বীপের স্বরাষ্ট্র উপমন্ত্রী আহমেদ সিদ্দিক। এ ছাড়া, মালদ্বীপের জাতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল আহমেদ সিয়াম বাংলাদেশ থেকে উপকূলীয় টহল নৌযান কেনার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন