default-image

কাতারভিত্তিক আল-জাজিরায় প্রচারিত ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ প্রতিবেদনে যেসব অভিযোগ এসেছে, তা তদন্ত করতে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিএনপি।

আজ বুধবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানানো হয়। দলটি জাতিসংঘকে তার নিজস্ব পদ্ধতিতে তদন্ত করার আহ্বান জানিয়েছে।

বিএনপি বলছে, দেশে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা না থাকায় বর্তমান সরকারের দুঃশাসনের চিত্র জনসম্মুখে আসছে না। এর পরিপ্রেক্ষিতেই আল–জাজিরার ওই প্রতিবেদন দেশে-বিদেশে সব মহলকে আরও উদ্বিগ্ন ও উৎকণ্ঠিত করে তুলেছে।

বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ইতিমধ্যে সাতটি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন ফর হিউম্যান রাইটস, দ্য এশিয়ান হিউম্যান রাইটস কমিশন, দ্য ওয়ার্ল্ড অ্যাগেইনস্ট টর্চার, দ্য এশিয়ান ফোরাম ফর হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটস এবং ইলিয়স জাস্টিস যৌথ বিবৃতিতে আল-জাজিরার প্রতিবেদনে উল্লেখিত অভিযোগগুলো নিয়ে জাতিসংঘকে নিজের মতো করে তদন্ত করতে বলেছে। সাতটি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থার এই আহ্বানের প্রতি বিএনপি পূর্ণ সমর্থন ঘোষণা করছে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান বিএনপির স্থায়ী কমিটির জ্যেষ্ঠ সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, আল–জাজিরার প্রতিবেদনে সরকারপ্রধানের পৃষ্ঠপোষকতায় রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায়ের কতিপয় কর্মকর্তা ও ব্যক্তির বিরুদ্ধে দেশে–বিদেশে তথ্যপ্রমাণসহ নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও সরকার প্রতিবাদে অভিযোগগুলোর সুনির্দিষ্ট জবাব না দিয়ে রাজনৈতিক বুলির আড়ালে অভিযোগগুলোকে প্রত্যাখ্যান করে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। এমনকি জাতিসংঘের মতো আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানকেও অপরাধ আড়ালের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করার প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। বিএনপি প্রতিবেদনটির বিষয়ে সরকারের গ্রহণযোগ্য ও বিশ্বাসযোগ্য ব্যাখ্যার দাবি জানাচ্ছে।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে, প্রতিরক্ষা বাহিনীকে সব বিতর্কের ঊর্ধ্বে রেখে তার স্বচ্ছ ভাবমূর্তি বজায় রাখা দলমত-নির্বিশেষে সবার নৈতিক দায়িত্ব। গোপনীয়তা লঙ্ঘনে আড়িপাতার সিগন্যাল সরঞ্জাম আমদানি জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনের বৃহত্তম অংশীদার হিসেবে বাংলাদেশের দায়িত্ব পালনকে অনিশ্চয়তার মুখে ফেলবে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন