default-image

ঢাকার প্রায় ৭০০ শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে শুরু হয়েছে নবম জাতীয় ডাচ বাংলা-প্রথম আলো বাংলাদেশ ফিজিকস অলিম্পিয়াড। আজ শুক্রবার সকাল পৌনে দশটার দিকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে এই বর্ণিল আয়োজনের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেন সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এ এন এম মেশকাত উদদীন।

দেশের ১৫টি অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা তিনটি ক্যাটাগরিতে শিক্ষার্থীরা অলিম্পিয়াডে অংশ নিচ্ছে। ক্যাটাগরি এ-তে ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি, ক্যাটাগরি বি-তে নবম ও দশম শ্রেণি এবং ক্যাটাগরি সি-তে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণি।

নরসিংদীর এন কে এম হাই স্কুলের শিক্ষার্থী সাদিয়া জাহান তার অভিভাবকের সঙ্গে ফিজিকস অলিম্পিয়াডে এসেছে। চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের আগে সে প্রথম আলোকে জানায়, পদার্থবিজ্ঞান তার প্রিয় বিষয়। অলিম্পিয়াডের জন্য তার প্রস্তুতিও বেশ ভালো।

default-image

উদ্বোধনের পর দেড় ঘণ্টার একটি লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। বিকেলে সাড়ে তিনটার দিকে আলোচনায় বক্তা হিসেবে থাকছেন ডাচ বাংলা ব্যাংক, প্রথম আলো, বাংলাদেশ ফিজিকস অলিম্পিয়াড কমিটি, সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের অতিথিরা। সমাপনীতে শিক্ষার্থীদের সনদ দেওয়া হবে।

জাতীয় পর্যায়ের আজকের প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে ডাকা হবে। পরে তাদের মধ্য থেকে আটজনকে নির্বাচিত করে অস্ট্রেলিয়ায় ২০ তম এশিয়ান ফিজিকস অলিম্পিয়াডে এবং পাঁচজনকে জর্ডানের ৫০ তম আন্তর্জাতিক ফিজিকস অলিম্পিয়াডে পাঠানো হবে।

উদ্বোধনী পর্বে আরও উপস্থিত ছিলেন সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্ট্রিজের সদস্য এম কামালউদ্দীন চৌধুরী, সহ উপাচার্য অধ্যাপক মো. আবু তাহের, রেজিস্ট্রার মেজর জেনারেল (অব.) কাজী ফকরুদ্দীন আহমেদ, বাংলাদেশ ফিজিকস অলিম্পিয়াড কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. ফায়েজ আহমেদ জাহাঙ্গীর।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন