default-image

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার আবার অবনতি হয়েছে। তিনি কোভিড–পরবর্তী নিউমোনিয়ায় ভুগছেন। তাঁর শরীর দুর্বল। আজ মঙ্গলবার গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের জিআর কোভিড-১৯ র‌্যাপিড ডট ব্লট কিট প্রকল্পের সমন্বয়কারী মুহিব উল্লাহ খোন্দকার স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র এসব কথা জানায়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘জাফরুল্লাহ চৌধুরী কোভিড-১৯ পরবর্তী সেকেন্ডারি নিউমোনিয়ায় ভুগছেন। সপ্তাহে তিনবার ডায়ালাইসিস–নির্ভর, বিকল কিডনি রোগী হিসেবে দীর্ঘ এক মাস রোগভোগের কারণে ওনার শরীর খুবই দুর্বল। স্বরযন্ত্রের প্রদাহের কারণে বর্তমানে কথা বলা নিষেধ।’

গতকাল সোমবার বিশিষ্ট চিকিৎসক অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লাহ জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে দেখে গেছেন। বিবৃতিতে বলা হয়, ডা. আবদুল্লাহ প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়েছেন এবং জাফরুল্লাহ চৌধুরীর অবস্থার অগ্রগতি সম্পর্কে নিয়মিতভাবে জানাতে বলেছেন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এক মাস ধরে জাফরুল্লাহ চৌধুরী গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি এখন করোনামুক্ত। তবে শারীরিকভাবে এখনো পুরোপুরি সুস্থ নন। তিনি গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে অধ্যাপক মামুন মোস্তাফী ও অধ্যাপক নজীবের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র বিবৃতিতে আরও জানিয়েছে, গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতাল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য শিগগিরই ১৫ শয্যার একটি আইসিইউ চালু করবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন